পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (তৃতীয় বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/২৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


& ঐতিহাসিক চিত্র। তাহার সিংহাসনারোহণের অব্যবহিত পরেই বঙ্গের স্বাধীন শাসনকৰ্ত্তা মোহাম্মদ তাতার খাঁ মৃত্যুমুখে পতিত হইলে, তিনি সের ফঁাকে লঙ্গেীতীর শাসনকৰ্ত্তারূপে নিযুক্ত করেন। শের খার পরে আমীর খ্যা ঐ পদে প্রতিষ্ঠিত হন। DDB sD DBBD BDBDD gBDuD SDDBDDDBS BBDBD DDBDBBD BBB BBB বুঝিয়া ১২৭৯ খৃষ্টাব্দে সুলতান মাঘিসউদ্দীন নাম পরিগ্রহ করত। আপনাকে বঙ্গদেশের শাসনকৰ্ত্তা বলিয়া প্ৰচারিত করেন । আরোগ্যলাভ করিয়া বলবন তুগরলের বিরুদ্ধে যুদ্ধযাত্ৰা করেন এবং সোণারগার নিকটে তাহাকে পরাজিত করিয়া স্বীয় পুত্ৰ বাঘেরা খাকে বঙ্গদেশের স্বলতান করেন। এই শাসন ? কৰ্ত্তাই সুলতান নাছির দীন উপাধি ধারণ করেন। পিতার মৃত্যুর পাঁচ বৎসর পরে নাছিরাদ্দীন ও ৬৯১ হিজরীতে পরলোকের যাত্রী হন। ১২৮৭ অব্দে নাছিরুদ্দীনের পুত্ৰ মুইজুদ্দীন কাইকোবাদ দিল্লীর মসনদে উপবিষ্ট হইয়া নিজের এক পারিষদ কুচক্ৰী মালিক নিজামুদ্দীনের কুপরামর্শে নিজের সহোদরকে झठा कब्रि८ऊ भन्छु कCब्रन । এই সংবাদ শ্রবণ করিয়া নাছিরাদ্দীন অত্যন্ত কুপিত হন এবং পুত্ৰকে সাবধান করিয়া অনেকগুলি পত্র লিখেন। কিন্তু তৎসমস্তই ব্যর্থ হয়। অবশেষে ৬৮৭ হিজরীতে নাছির দীন এক দল সৈন্য লইয়া অবাধ্য পুত্ৰকে শাসন ও দিল্পী জয় করিতে বহির্গত হন। কোরার ( Corrah ) নিকট গঙ্গাতীরে পিতা পুত্রে সম্মুখীন হন । “তাহারা উভয়ে উভয়ের বিরুদ্ধে অস্ত্র ধারণ করিতে কৃতসংকল্প ! হন ; কিন্তু ভগবানের ইচ্ছায় মুসলমান রক্তে ধারণী প্লাবিত হইতে হইতে বাচিয়া যায়,--নাছি রুদ্দীনের হৃদয় অপত্যস্নেহে বিগলিত হয়। প্ৰজাবৃন্দের রক্ত-স্রোত প্ৰবাহিত হইতে হইতে স্থগিত হওয়ায় মুসলমানেরা তঁহাদের এই সন্মিলনকে দুইটি মঙ্গলকর গ্রহের একত্র মিলনের সহিত তুলনা করিয়া থাকে। তৎকালীন প্ৰসিদ্ধ কবি দিল্লীনিবাসী মীর খসরু এই ঘটনা লইয়া এক উপাদেয়। গাখা রচনা করিয়া গিয়াছেন। ইবু বটুটা এই ঘটনাই সংক্ষেপে উপরে উল্লেখ । কৰিয়াছেন। নাছিকুদ্দীনের পর তৎপুত্র রুকুনুদ্দীন সিংহাসন অধিকার ( ৬৯১ হিজরী ) করেন, তৎপর ৭০২ হিজরীতে ( ১৩০২ খৃষ্টাব্দে ) তদভ্ৰাতা