পাতা:ঐতিহাসিক চিত্র (তৃতীয় বর্ষ) - নিখিলনাথ রায়.pdf/৯৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


লিখন-প্ৰণালী । S) করিবার প্রণালী উদ্ভাবিত করেন যে, সেই সুপরিচিত পূৰ্ব্ব প্রণালীর (আবৃত্তি ও স্মৃতি ) পরিবর্তে সহজে নবাগত অপরিচিত প্ৰণালী প্ৰবৰ্ত্তন করিতে তাহারা ইছুক হন না। দ্বিতীয়তঃ তাহারা লিখন-প্ৰণালী প্ৰবৰ্ত্তিত করিাবার ইচ্ছা করিলেও তাহা করিতে পারিতেন না । কারণ যৎকালে তঁাহারা এই বিষয় অবগত হন, তৎকালে বিস্তৃত বিষয় লিখিবার প্রয়োজনীয় উপকরণ —ঠাহাদের নিকট অপরিজ্ঞাত ছিল । তাহাদের লিখন-প্ৰণালীর সুচনা সময়ের এই কয়েকটি বিস্ময়কর বিষয় আমরা অল্পদিন হইল জানিতে পারিয়াছি । ভারতবর্ষে লিখন-প্ৰণালী প্ৰবৰ্ত্তিত হওয়ার কাল-নির্ণয়ের ত্ৰিবিধ প্ৰমাণ দেওয়া যাইতে পারে। এই ত্ৰিবিধ প্ৰমাণমূলেই একই সময় সুচিত হইতেছে। এই সময়টা জানিতে পারিলে এ বিষয়ের মাথার্থ মীমাংসা হইতে পারে । প্ৰথম প্ৰমাণ-পূর্বোন্ধত উক্তি সমূহ। এতদ্বারা ভারতীয় সাহিত্যে লিখনপ্ৰণালীর প্রাচীনতম উল্লেখ পাওয়া যায় । দ্বিতীয় প্রমাণের আবিষ্কৰ্ত্তাস্বরূপ সৰ্ব্ব প্ৰথম অধ্যাপক ওয়েবার এবং পরে cLLL cLSLLL SKKSLDBB KYS JDuDDB BBDDD0 BSDBSDDBBDY প্ৰাচীন অক্ষরমালার কতক অংশ আসিরিয় কোন কোন মানের ( বাটখারা ) উপরের লিখিত লিপির সহিত এবং সপ্তম ও নবম শতাব্দীর তথাকথিত ‘মেশালিপির” সহিত সম্পূর্ণ ঐক্য। ঐ সময়ের উত্তর সেমিটক বর্ণমালার ২২টি অক্ষরের সাতটি অক্ষর তৎকালীন ভারতের প্রাচীন বর্ণমালার সহিত একরূপ ; এবং আর সাতটি অক্ষর উভয় প্রদেশেরই প্ৰায় একরূপ। অবশিষ্ট সাতটি লিপি ও অতি কষ্টে ঐক্য করা যাইতে পারে । অপরাপর পণ্ডিতগণ দক্ষিণ সেমিটক্‌ বর্ণমালার সহিত ভারতীয় অক্ষরমালার সাদৃশ্য প্রদর্শনের চেষ্টা করিয়াছেন, কিন্তু তাহা পূর্বোক্তের ন্যায় সন্তোষজনক নহে। এই উভয় লিপি আলোচনা করিয়া ওয়েবর এবং বুল হার স্থির করিয়াছেন যে, উত্তর সেমিটক uDBDiDDB DBDBBDB DDBD DBDBDBDB LDDuT BBBDL S SKBDBD LLLS LLLLLL LLLLLL BBB sS BKBLDB LBD DBSgD DDD DBB