পাতা:করিম সেখ - জলধর সেন.pdf/৩৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৩২ করিম সেখ সে প্ৰথমে নিকার প্রস্তাব উপস্থিত করিবে ; তঁহার সন্মতি গ্ৰহণ করিয়া সে সরলভাবে বসিরের স্ত্রীকে তাহার অভিপ্ৰায় জানাইবে। বসিরের স্ত্রী যদি তাহাতে সম্মত হয়, ভাল ; আর যদি এই নির্বোধ স্ত্রীলোকটা নিজের মঙ্গল না বুঝিয়া, তাহার প্রস্তাবে অসম্মতি প্ৰকাশ করে, তাহা হইলে, বলপ্রকাশ ভিন্ন উপায়ান্তর নাই। এই স্থির করিয়া একদিন সন্ধ্যার পর সে বসিরেব মাতার নিকট বসিয়া, প্ৰথমে নানা গল্প করিতে লাগিল। দেশের অবস্থা, ধান চা’লের দুর্মুল্যতার কথা, খাদ্য দ্রব্যের মহাৰ্যতার কথা আলোচনা করিতে লাগিল। তাহার পর সে ধীরে ধীরে অতি বিনীতভাবে বলিল, “আজ কয়েক দিন হইতেই একটা কথা DBDBD BB DBuDSS Sg BB BB DBD DBBDB DDD DDD SS sg বলিয়াই করিম চুপ করিল ; কেমন করিয়া সে আসল প্রস্তাবটা উপস্থিত করিবে, তাহা সে ভাবিয়া স্থির করিতে পারিল না। তাহাকে নীরব দেখিয়া বসিরের ২ মাতা বলিল, “কি কথা বাবা করিম! বলিতে বলিতে চুপ কোরে গেলে কেন ?” করিম বলিল, “তা—তা—এমন কিছু নয়। বলছিলাম কিআমি বলছিলাম যে বসির ভাই—ত চ’লে গেল। তারপর এই ছেলেটী হ’ল। আমি আর কতকােল লুকাইয়া লুকাইয়া সাহায্য করব ? তারপর এই বাড়ীতে সব সময় যাই আসি ব’লে নানা জনে নানা কথা বলে। সে ত আর ভাল নয়। তাই আমি बन्छाश कि-ठाश् कथाप्ने ८छ्रे कि ना—” जश्न कब्रिन आबाद्ध চুপ করিল। বসিরের মা সেকালের মানুষ, সে করিমের কথাটা বুঝিতেই পারিল না। সে বলিল “তা বাবা! তুমি কি মনে কোরেছ, তা আমি ত বুঝতে পারলাম না।” ”