পাতা:করিম সেখ - জলধর সেন.pdf/৪৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


80 कब्रिम 6र्थं যে আমাদের অল্পে ছেড়ে দেবে তা মনে হয় না । হয় তা.কোন দিন বরে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে মারতেও পারে ।” বীে বলিল “মরণ ত আছেই, তা না :হয় ওর হাতেই মরব। তা ব’লে এ ভিটে ছেড়ে যেতে পারব না। দেখি, ও আমার কি ক’রতে পারে। মাথার উপর আল্লা আছেন। যিনি আজ মান ইচ্ছত বাঁচিয়েছেন, তিনিই বঁচাবেন! তুমি কিছু ভেবো না মা !” বুড়ী বলিল “আমি বলি কি, তুমি ছেলেটা নিয়ে তোমার বাপের . বাড়ী যাও, আমিও এখান থেকে চ’লে যাই। লক্ষ্মীপুরে আমার এক মামুর ছেলেরা আছে, তাদের কাছে যাই। আমার দুঃখ দেখলে তারা আমাকে ফেলতে পারবে না। এখানে থাকা আর উচিত নয়। তুমি যদি দুঃখে কষ্টে ছেলেটাকে মানুষ কোরতে পার, তা হ’লে আমার বসিরের নামটা থাকে।” বুড়ী আর কথা বলিতে পারিল না ; ছেলের কথা মনে পড়ায় তাহার শোকসিন্ধু উথলিয়া উঠিল। ' ' ". . . বীে বলিল “আমি এ ভিটে ছেড়ে কোথাও যেতে পারবো না মা ! আমি আল্লার নাম ক’রে ছেলেটা নিয়ে এখানেই পড়ে থাকব। ভিক্ষা ক’রে খাব, তবুও এ ভিটে ছাড়ব না।”

  • বুড়ী বলিল “মা ! তুমি ছেলেমানুষ, বুঝতে পারিছ না। তোমার সোমন্ত্ব বয়েস ; কোলে ঐ দুধের বাছা ; সব দিক ভেবে দেখতে হয়। যদি বাপের বাড়ী যেতে না চাও, নাই গেলে ; এখানেই কারো আশ্রয় নিয়ে থাক।” -

বীে বলিল “মা, তুমি আমার মনের কথা কি আজও বুঝতে পারলে না ? তোমার ছেলে যে পথে গিয়েছে আমার দুনিয়ার সুখও জন্মের মত সেই পথে গিয়েছে। তুমি কি মনে কর আমি