পাতা:কাব্যগ্রন্থ (চতুর্থ খণ্ড).pdf/৩০২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ক্ষণিকা এখন কি আর আছে সে বল ? বুকের তলা তোর ভরে উঠছে জলে । অশ্র সেচে’ চলবি কত আপন ভারে ভোর তলিয়ে যাবি তলে । এবার তবে ক্ষান্ত হ’ রে ওরে শ্রান্ত তরী ! রাখরে আনাগোনা ! বর্ষ-শেষের বাঁশি বাজে সন্ধ্যা-গগন ভরি’, ঐ যেতেছে শোনা । এবার ঘুমো কূলের কোলে বটের ছায়াতলে ঘাটের পাশে রহি’ ; ঘাটের ঘায়ে যেটুকু ঢেউ উঠে তটের জলে তারি আঘাত সহি’ । ইচ্ছা যদি করিস্ তবে এপার হ’তে পারে যাস্রে খেয়া বেয়ে । 있어\P