পাতা:কাব্যগ্রন্থ (চতুর্থ খণ্ড).pdf/৫৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মেঘদূত নিমেষে টুটিয়া গেল সে মহাপ্রতাপ । উদ্ধ হ’তে একদিন দেবতার শাপ পশিল সে সুখরাজ্যে, বিচ্ছেদের শিখা করিয়া বহন ; মিলনের মরীচিকা, যৌবনের বিশ্ব গ্রাসী মত্ত অহমিকা মুহূৰ্বে মিলায়ে গেল মায়া-কুহেলিকা খররেদ্রকরে। ছয় ঋতু সহচরী ফেলিয়া চামরছত্র, সভাভঙ্গ করি’ সহসা তুলিয়া দিল রঙ্গ-যবনিকা— সহসা খুলিয়া গেল, যেন চিত্রে লিখা— আষাঢ়ের অশ্রশ্নত সুন্দর ভুবন ! দেখা দিল চারিদিকে পববত কানন নগর নগরী গ্রাম ; বিশ্বসভামাঝে তোমার বিরহবীণা সকরুণ বাজে । 있어