পাতা:কাব্যগ্রন্থ (তৃতীয় খণ্ড).pdf/৩৪২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


যত প্রতিবিম্ব যেন দপণের তলে পড়েছে আসিয়া । হে জননী পুত্রহারা, শেষ বিচ্ছেদের দিনে যে শোকাশীধারা চক্ষু হতে ঝরি পড়ি তব মাতৃস্তন করেছিল অভিষিক্ত—আজি এতক্ষণ সে অশ্রু শুকায়ে গেছে ; তবু জানি মনে যখনি ফিরিব পুনঃ তব নিকেতনে তখনি দুখানি বাহু ধরিবে আমায়, বাজিবে মঙ্গলশঙ্খ, মেহের ছায়ায় দুঃখে সুখে ভয়ে ভরা প্রেমের সংসারে তব গেহে, তব পুত্রকন্যার মাঝারে, আমারে লইবে চিরপরিচিতসম,— তা’র পরদিন হ’তে শিয়রেতে মম সারাক্ষণ জাগি র’বে কম্পমান প্রাণে, শঙ্কিত অন্তরে, উদ্ধে দেবতার পানে মেলিয়া করুণ দৃষ্টি—চিন্তিত সদাই যাহারে পেয়েছি তারে কখন হারাই । ২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৩০২ ৩২৬