পাতা:কাব্যগ্রন্থ (দশম খণ্ড).pdf/১১১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বিবিধ-সঙ্গীত স্থজনে দেখা হ’ল—মধু যামিনী রে – কেন কথা কহিল না—চলিয়া গেল ধীরে ॥ নিকুঞ্জে দখিনা বায়, করিছে হায় হায়— লতা পাতা ছলে দুলে ডাকিছে ফিরে ফিরে । দুজনের আঁখি-বারি গোপনে গেল ঝরে’— দুজনের প্রাণের কথা প্রাণেতে গেল মরে’ । আর ত হ’ল না দেখা, জগতে দোহে একা, চিরদিন ছাড়াছাড়ি যমুনা-তীরে । ক্ষাপা তুই আছিস আপন খেয়াল ধরে । যে আসে তোমার পশে সবাষ্ট হাসে দেখে তোরে । জগতে যে যার অাছে আপন কাজে দিবানিশি, তারা পায় না বুঝে তুই কি খুজে ক্ষেপে বেড়াস জনম ভোরে তোর নাই অবসর নাইক দোসর ভবের মাঝে, তোরে চিনতে যে চাই সময় না পাই নানান কাজে । ওরে তুই কি শুনাতে এত প্রাতে মরিস ডেকে, এ যে বিষম জাল ঝালাফল দিবি সবায় পাগল করে’ ৷ ওরে তুই কি এনেচিস কি টেনেচিস ভাবের জালে তা’র কি মূল্য আছে কারো কাছে কোনো কালে । ᎼᎼ