পাতা:কাব্যগ্রন্থ (নবম খণ্ড).pdf/১৭২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অচলায়তন পঞ্চক। দাদা, তুমি ত দেখলে—তোমাদের এখানকার মন্ত্রতন্ত্র আচার আচমন সূত্র বৃত্তি কিছুই পারলুম না । মহাপঞ্চক । সে ত দেখতে বাকি নেই—কিন্তু সেটা কি খুব তানন্দ করবার বিষয় ? তই নিয়ে কি গলা ছেড়ে গান গাইতে হবে ? পঞ্চক। একমাত্র ঐটেই যে পারি । মহাপঞ্চক । পারি ! ভারি অহঙ্কার । গান ত পার্থী ও গাইতে পারে । সেই যে বড়বিদারণ মন্ত্রটা আজি সাত দিন ধরে তোমার মুখস্থ হ’ল না আজ তা’র কি করলে ? পঞ্চক । সাত দিন যেমন হয়েচে অস্টম দিনে ও অনেকট সেই রকম। বরঞ্চ একটু খারাপ । মহাপঞ্চক । খারাপ ! ত’র মনে কি হ’ল । পঞ্চক । জিনিঘট যতই পুরোনে হচ্চে মন ততই লাগ চে না, ভুল ততই করঢ়ি-ভুল যতই বেশিবার করচি ততই সেইটেষ্ট পাকা হ’য়ে যাচে । তাই গোড়ায় তোমরা যেটা বলে’ দিয়েছিলে আর তাজ আমি যেট। তাওড়াচিচ দুটোর মধ্যে অনেকটা তফাৎ হ’য়ে গেচে । চেনা শক্ত । মহাপঞ্চক । সেই তফাৎটা ঘোচাতে হবে, নিৰ্ব্বোধ ! পঞ্চক । সহজেই ঘোচে, যদি তোমাদেরটাকেই আমার মত করে’ নাও ! নইলে, আমি ত পারব না । 9. Ꮌ8bᎹ