পাতা:কাব্যগ্রন্থ (নবম খণ্ড).pdf/১৮০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অচলায়তন ( মহাপঞ্চকের প্রবেশ ) মহাপঞ্চক। পঞ্চক ! তুমি বড় উৎপাত করচ ! পঞ্চক । দাদা, এরাই গোল করছিল । আমি আরো থামিয়ে দেবার জন্যেই এসেচি। তট তট তেতিয় তেতিয় স্ফট সফট— মহাপঞ্চক । তোমার নিজের কাজ অবহেলা করবার একটা উপলক্ষ্য জুটলেই তোমাকে সম্বরণ করা তাসম্ভব । বিশ্বম্ভর । দেখুন, একটা জনশ্রুতি শুনতে পাচ্চি, বর্ষার আরস্তে আমাদের গুরু নাকি এখানে আসবেন । মহাপঞ্চক । তাসবেন কিন তা নিয়ে তান্দোলন না করে’ যদিই আসেন তার জন্যে প্রস্তুত ক ও । পঞ্চক । তিনি যদি তাসেন তিনিই প্রস্তুত হবেন । এদিক থেকে আবার তামির ও প্রস্তুত হ’তে গেলে হয় ত মিথ্যে একটা গোলমাল হবে । মহাপঞ্চক । ভরি বুদ্ধিমানের মতই কথা বল্লে । পঞ্চক। অন্নের গ্রাস যখন মুখের কাছে এগয় তখন মুখ স্থির হয়ে সেট গ্রহণ করে—এ ত সোজা কথা ! আমার ভয় হয় গুর এসে হয়ত দেখবেন তামির। যেদিক দিয়ে প্রস্তুত হ’তে গিয়েচি সে দিকটা উণ্টে । সেইজন্যে আমি কিছু করিনে। মহাপঞ্চক। পঞ্চক, তাবার তর্ক ? >Q○