পাতা:কাব্যগ্রন্থ (নবম খণ্ড).pdf/২০৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


অচলায়তন তাচাৰ্য্য। প্রায়শ্চিত্তের । মহাপঞ্চক। প্রয়োজন নেই বলচেন ! আধিকমিক বর্ষায়ণ খুলে তামি এখনি দেখিয়ে দিচ্চি— আচার্য্য । দরকার নেই—হুভদ্রকে কোনো প্রায়শ্চিত্ত করতে হলে না, তামি তাশালপাদ করে তা’র— মহাপঞ্চক ৷ এও কি কখনো সম্ভব হয় ? যা কোনো শাস্ত্রে নেই আপনি কি তাই— আচাৰ্য্য । না, হ’তে দেব না, যদি কোনো অপরাধ ঘটে সে অমল ! তোমাদের ভয় নেই । উপাধ্যায়। এ রকম দুর্বললত ত আপনার কোনো দিন দেখিনি । এই ত সেবার অষ্টাঙ্গ শুদ্ধি উপবাসে عید سعيصب صيفي ميسيسود ميجابي তৃতীয় রাত্রে বালক কুশলশীল জল জল করে’ পিপাসায় প্রাণত্যাগ করলে কিন্তু তবু তার মুখে যখন এক বিন্দু জল দেওয়া গেল না তখন ত আপনি নীরব হ’য়ে ছিলেন। তুচ্ছ মানুষের প্রাণ আজ আছে কাল নেই, কিন্তু সনাতন ধৰ্ম্মবিধি ত চিরকালের । ( সুভদ্রকে লইয়া পঞ্চকের প্রবেশ ) পঞ্চক । ভয় নেই সুভদ্র, তোর কোনো ভয় নেই—এই শিশুটিকে অভয় দাও প্রভু ! আচাৰ্য্য। বৎস, তুমি কোনো পাপ করনি বৎস, যারা বিনা অপরাধে তোমাকে হাজার হাজার বৎসর ধরে মুখ >b">