পাতা:কাব্যগ্রন্থ (নবম খণ্ড).pdf/৩৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রাজা রাজা । কে বল্লে দেখতে পায় ? মূঢ় যারা তারা মনে করে দেখতে পাচ্চি । সুদৰ্শন । তা হোক, আমাকে দেখা দিতেই হবে । রাজা । সহ্য করতে পারবে না—কষ্ট হবে । সুদৰ্শন । সহ্য হবে না–তুমি বল কি ! তুমি যে কত সুন্দর কত আশ্চৰ্য্য ত৷ এই অন্ধকারেই বুঝতে পারি আর আলোতে বুঝতে পারব না ? বাইরে যখন তোমার বীণা বাজে তখন আমার এমনি হয় যে আমার নিজেকে সেই বীণার গান বলে’ মনে হয়। তোমার ঐ সুগন্ধ উত্তরীয়টা যখন আমার গায়ে এসে ঠেকে তখন আমার মনে হয় আমার সমস্ত অঙ্গটা বাতাসে ঘন আনন্দের সঙ্গে মিলে গেল । তোমাকে দেখলে আমি সইতে পারব না এ কি কথা । রাজা । আমার কোনো রূপ কি তোমার মনে আসে ন ? স্তদর্শন এক রকম করে আসে বৈ কি ! নইলে বাচব কি করে’ ? রাজা । কি রকম দেখেছ ? 壩 স্তদশনা । সে ত এক রকম নয় । নব বষার দিনে জলভর মেঘে আকাশের শেষ প্রান্তে বনের রেখা যখন নিবিড় ত’য়ে ওঠে, তখন বসে’ বসে’ মনে করি আমার রাজার রূপটি বুঝি এই রকম, এমনি নেমে-আসা, এমনি ঢেকে-দেওয়া, এমনি চোখ-জুড়ানো, এমনি হৃদয় S8