পাতা:কাব্যগ্রন্থ (নবম খণ্ড).pdf/৪১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রাজা ভরে’ ওঠে । কিন্তু ভালো করে প্রত্যয় হয় না ; নিজের মধ্যে ত দেখতে পাইনে । রাজা । নিজের তায়নায় দেখা যায় ন|-—ছোট হ’য়ে যায় । আমার চিত্তের মধ্যে যদি দেখতে পা ও ত দেখ বে সে কত বড় ! আমার সদয়ে তুমি যে আমার দ্বিতীয়, তুমি সেখানে কি শুধু তুমি । সুদৰ্শন । বল বল এমনি করে’ বল ! আমার কাঢ়ে, তোমার কথা গানের মত বোধ হচ্চে,-–যেন তানদিকালের গান, যেন জন্মজন্মান্তর শুনে এসেছি ; সে কি তুমিই শুনিয়েছ, আর আমাকেই শুনিয়েছ ? না যাকে শুনিয়েছ সে আমার চেয়ে অনেক বড়, অনেক নেদর. —তোমার গানে সেই অলোকসুন্দরীকে দেখতে পাই--সে কি আমার মধ্যে, না তোমার মধ্যে ? তুমি আমাকে যেমন করে দেখ চ তাই একবার এক নিমেষের জন্তে আমাকে দেখিয়ে দাও না ! তোমার কাছে অন্ধকার বলে’ কি কিছুই নেই ? সেই জন্যেই ত তোমাকে কেমন আমার ভয় কবে । এই যে কঠিন কালো লোহার মত অন্ধকার, যা আমার উপর ঘুমের মত, মূৰ্চ্ছার মত, মৃত্যুর মত, তোমার দিকে তা’র কিছুই নেই ! তবে এ জায়গায় তোমার সঙ্গে আমি কেমন করে মিলব ? না, না, হবে না মিলন, হবে না । এখানে নয়, এখানে ➢ማ 9—2