পাতা:কাব্যগ্রন্থ (নবম খণ্ড).pdf/৪২২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গীতি-মাল্য Sఏ তা’র অন্ত নাই গো যে আনন্দে গড়া আমার অঙ্গ । তা’র অণু-পরমাণু পেল কত আলোর সঙ্গ । ও তা’র অন্ত নাই গো নাই । তা’রে মোহন মন্ত্র দিয়ে গেচে কত ফুলের গন্ধ । তা’রে দোলা দিয়ে দুলিয়ে গেচে কত ঢেউয়ের ছন্দ । ও তা’র অন্ত নাই গো নাই । আছে কত স্তরের সোহাগ যে তা’র স্তরে স্তরে লগ্ন । সে যে কত রঙের রসধারায় কতই হ’ল মগ্ন । ও তা’র অন্ত নাই গো নাই । কত শুকতারা যে স্বপ্নে তাহার রেখে গেচে স্পর্শ, কত বসন্ত যে ঢেলেচে তায় অকারণের হর্ম । ও তা’র অন্ত নাই গো নাই । সে যে প্রাণ পেয়েচে পান করে যুগ-যুগান্তরের স্তন্য, ভুবন কত তীৰ্থজলের ধারায় করেচে তায় ধন্য । ও তা’র অন্ত নাই গো নাই । সে যে সঙ্গিনী মোর আমারে যে দিয়েচে বরমাল্য । আমি ধন্য সে মোর অঙ্গনে যে কত প্রদীপ জ্বালল । ও তা’র অন্ত নাই গো নাই ॥ ৫ই বৈশাখ, >○ミ> শাস্তিনিকেতন ᏬᎼb~