পাতা:কাব্যগ্রন্থ (নবম খণ্ড).pdf/৭৫৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বলাকা ©ማ দূর হতে কি শুনিস মৃত্যুর গর্জন, ওরে দীন, ওরে উদাসীন, ওই ক্ৰনদনের কলরোল, লক্ষ বক্ষ হ’তে মুক্ত রক্তের কল্লোল ! বহিবন্যা-তরঙ্গের বেগ, বিষশ্বাস ঝটিকার মেঘ, ভূতল গগন মূচ্ছিত বিহবল-করা মরণে মরণে আলিঙ্গন,— ওরি মাঝে পথ চিরে চিরে নূতন সমুদ্র-তীরে তর নিয়ে দিতে হবে পাড়ি,— ডাকিছে কাণ্ডারী এসেচে আদেশ– বন্দরে বন্ধনকাল এবারের মত হ’ল শেষ, পুরানো সঞ্চয় নিয়ে ফিরে ফিরে শুধু বেচাকেন। আর চলিবে না । বঞ্চনা বাড়িয় ওঠে, ফুরায় সত্যের যত পুজি, কাণ্ডারী ডাকিছে তাই বুঝি,— “তুফানের মাঝখানে নূতন সমুদ্রতীর পানে দিতে হবে পাড়ি ।” ৭৩৫