পাতা:কাব্যগ্রন্থ (পঞ্চম খণ্ড).pdf/১৭৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গান্ধারীর আবেদন দিত অংশ তা’র—নিত্য নব ভোগসুখে আছিনু নিশ্চিন্ত চিত্তে অনন্ত কৌতুকে । সুখে ছিনু পাণ্ডবের জয়ধ্বনি যবে হানিত কৌরব-কর্ণ প্রতিধ্বনিরবে ; পাণ্ডবের যশোবিস্ব-প্রতিবিম্ব আসি উজ্জ্বল অঙ্গুলি দিয়া দিত পরকাশি’ মলিন-কৌরবকক্ষ । সুখে ছিনু পিতঃ আপনার সর্ববতেজ করি নির্বর্বাপিত পাণ্ডব-গৌরবতলে স্নিগ্ধশান্তরূপে হেমন্তের ভেক যথা জড়ত্বের কূপে। আজি পাণ্ডুপুত্ৰগণে পরাভব বহি বনে যায় চলি,— আজ আমি সুখী নহি, অাজ আমি জয়ী । ধৃতরাষ্ট্র ধিক তোর ভ্রাতৃদ্রোহ ! পাণ্ডবের কৌরবের এক পিতামহ সে কি ভুলে গেলি ? দুৰ্য্যোধন ভুলিতে পারিনে সে যে, এক পিতামহ তবু ধনে মানে তেজে Ᏹ ©Ꮻ