পাতা:কাব্যগ্রন্থ (পঞ্চম খণ্ড).pdf/১৯৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


নাহি করি । কভু জয়, কভু পরাজয়,— মধ্যাহ্ন গগনে কভু, কভু অস্তধামে ক্ষত্রিয়মহিমা সূৰ্য্য উঠে আর নামে । ক্ষত্রবীরাঙ্গনা মাতঃ সেই কথা স্মরি শঙ্কার বক্ষেতে থাকি সঙ্কটে না ডরি ক্ষণকাল । দুদিন-দুৰ্য্যোগ যদি আসে, বিমুখ ভাগ্যেরে তবে হানি’ উপহাসে কেমনে মরিতে হয় জানি তাহ দেবি, কেমনে বাচিতে হয়, শ্রীচরণ সেবি’ সে শিক্ষাও লভিয়াছি । গান্ধারী বৎসে, অমঙ্গল একেলা তোমার নহে । ল’য়ে দলবল সে যবে মিটায় ক্ষুধা উঠে হাহাকার কত বীর-রক্তস্রোতে কত বিধবার অশ্রুধারা পড়ে আসি—-রত্নঅলঙ্কার বধূহস্ত হ’তে খসি পড়ে শত শত চুতলতা-কুঞ্জবনে মঞ্জরীর মত ঝঞাবাতে । বৎসে, ভাঙিয়ে না বদ্ধ সেতু । ক্রীড়াচ্ছলে তুলিয়ে না বিপ্লবের কেতু >b"○ |