পাতা:কাব্যগ্রন্থ (পঞ্চম খণ্ড).pdf/২০৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


শোণিত-তপণে তোর প্রায়শ্চিত্ত শেষ,— যবনের গৃহে তোর নাহিক প্রবেশ আর কভু । বল তবে কোথা যাবি আজ ? অমাবাই হে নির্দয় আছে মৃত্যু, আছে যমরাজ, পিতা হ’তে স্নেহময়, মুক্তদ্বারে র্যার আশ্রয় মাগিয়া কেহ ফিরে নাই আর । বিনায়ক রাও মৃত্যু ? বৎসে । হা হুবৃত্তে | পরম পাবক নিৰ্ম্মল উদার মৃত্যু—সকল পাতক করে গ্রাস—সিন্ধু যথা সকল নদীর সব পঙ্করাশি । সেই মৃত্যু সুগভীর তোর মুক্তি গতি । কিন্তু মৃত্যু আজ না সে, নহে হেথ । চল তবে দূর তীর্থবাসে সলজ্জ স্বজন আর সক্রোধ সমাজ পরি হরি ; বিসজ্জি কলঙ্ক ভয় লাজ জন্মভূমি ধুলিতলে । সেথা গঙ্গাতীরে নবীন নিৰ্ম্মল বায়ু ;—স্বচ্ছ পুণ্যনীরে তিন সন্ধ্যা স্নান করি’, নির্জন কুটীরে শিব শিব শিব নাম জপি শান্ত মনে, সুদূর মন্দির হতে সায়াহ্ন পবনে لا ه دا