পাতা:কাব্যগ্রন্থ (পঞ্চম খণ্ড).pdf/২৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


না করিলি সম্ভাষণ, না শুধালি কথা, না চাহিলি ক্ষমা ভিক্ষা,—বর্বর্বরের মত রহিলি দাড়ায়ে—হেলা করি’ চলি গেলা বীর। বাচিতাম, সে মুহূৰ্ত্তে মরিতাম যদি -- পরদিন প্রাতে দূরে ফেলে দিমু পুরুষের বেশ। পরিলাম রক্তাম্বর, কঙ্কণ কিঙ্কিণী কাঞ্চি । অনভ্যস্ত সাজ লজ্জায় জড়ায়ে অঙ্গ রহিল একান্ত সসঙ্কোচে । গোপনে গেলাম সেই বনে । অরণ্যের শিবালয়ে দেখিলাম তারে – মদন বলে’ যাও বালা । মোর কাছে করিয়ো ন! লাজ। আমি মনসিজ ; মানসের সকল রহস্য জানি । চিত্রাঙ্গদ মনে নাই ভালো, তা’র পরে কি কহিনু আমি, কি উত্তর শুনিলাম। আর শুধায়ে না, ভগবন ! মাথায় পড়িল ভেঙে লজ্জা বজরূপে তবু মোরে পারিল না শতধা করিতে—