পাতা:কাব্যগ্রন্থ (পঞ্চম খণ্ড).pdf/২৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চিত্রাঙ্গদ। নারী হ’য়ে এমনি পুরুষপ্রাণ মোর ! নাহি জানি কেমনে এলেম ঘরে ফিরে” দুঃস্বপ্নবিহবলসম । শেষ কথা তার কৰ্ণে মোর বাজিতে লাগিল তপ্ত শূল— “ব্রহ্মচারীব্রতধারী অামি । পতিযোগ্য নহি বরাঙ্গনে ৷” পুরুষের ব্রহ্মচৰ্য্য ! ধিক মোরে, তাও আমি নারিনু টলাতে । তুমি জান, মীনকেতু, কত ঋষি মুনি করিয়াছে বিসর্জন নারীপদতলে চিরার্জিত তপস্যার ফল । ক্ষত্রিয়ের ব্রহ্মচৰ্য্য —গৃহে গিয়ে ভাঙিয়ে ফেলিনু ধনুঃশর যাহা কিছু ছিল ;–কিণাঙ্কিত এ কঠিন করতল—ছিল যা গবেবর ধন এতকাল—লাঞ্ছনা করিনু তারে নিস্ফল তাক্রোশভরে । এতদিন পরে বুঝিলাম, নারী হ’য়ে পুরুষের মন না যদি জিনিতে পারি বৃথা বিদ্যা যত । অবলার কোমল মৃণাল বাহুদুটি এ বাহুর চেয়ে ধরে শতগুণ বল । ধন্য সেই মুগ্ধ মুর্থ ক্ষীণ-তনুলত৷ পরাবলম্বিতা, লজ্জাভয়ে লীনাঙ্গিনী > o.