পাতা:কাব্যগ্রন্থ (পঞ্চম খণ্ড).pdf/৩৬৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পরিশোধ তোমার কি কাজ ছিল ! এ জন্মের লাগি তোর পাপ-মূল্যে কেনা মহাপাপভাগী এ জীবন করিলি ধিক্কত। কলঙ্কিনী, ধিক এ নিশ্বাস মোর তোর কাছে ঋণী ! ধিক এ নিমেষপাত প্রত্যেক নিমেষে * এত বলি উঠিল সবলে । নিরুদেশে নৌকা ছাড়ি চলি গেলা তীরে—অন্ধকারে বনমাঝে । শুষ্কপত্ররাশি পদভারে শবদ করি বনানীরে করিল চকিত প্রতিক্ষণে ; ঘন গুল্মগন্ধ পুঞ্জীকৃত বায়ুশূন্ত বনতলে ; তরুকাণ্ডগুলি চারিদিকে আঁকাবঁকা নানা শাখা তুলি অন্ধকারে ধরিয়াছে অসংখ্য আকার . বিকৃত বিরূপ ; রুদ্ধ হ’ল চারিধার ; নিস্তব্ধ নিষেধসম প্রসারিল কর লতাশূঙ্খলিত বন । শ্রান্তকলেবর পথিক বসিল ভূমে। কে তা’র পশ্চাতে দাড়াইল উপচছায়াসম ! সাথে সাথে অন্ধকারে পদে পদে তা’রে অনুসরি আসিয়াছে দীর্ঘ পথ মৌনী অনুচরী রক্তসিক্ত পদে । দুই মুষ্টি বদ্ধ করে” গজ্জিল পথিক—“তবু ছাড়িবি না মোরে ” ○○ ○