পাতা:কাব্যগ্রন্থ (পঞ্চম খণ্ড).pdf/৪২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ক্ৰন্দনবিহীন, মাঝখানে ফুরাইবে কুসুমকাহিনীটুকু আদি অন্তহারা । বসন্ত একটি প্রভাতে ফুটে অনন্ত জীবন, হে সুন্দরি ! মদন সঙ্গীতে যেমন, ক্ষণিকের তানে, গুঞ্জরি কাদিয়া উঠে অন্তহীন কথা । তা’র পরে বল । চিত্রাঙ্গদা ভাবিতে ভাবিতে সর্ববঙ্গে হানিতেছিল ঘুমের হিল্লোল দক্ষিণের বায়ু । সপ্তপর্ণশাখা হ’তে ফুল্ল মালতীর লতা টুপটাপ করি’ মোর গেীরতনুপরে পাঠাইতেছিল শত নিঃশব্দ চুম্বন ; ফুলগুলি কেহ চুলে, কেহ পদমূলে, কেহ স্তনতটে বিছাইল আপনার মরণশয়ন । অচেতনে গেল কতক্ষণ । হেনকালে জানি না কখন ঘুমঘোরে, অনুভব २b”