পাতা:কাব্যগ্রন্থ (পঞ্চম খণ্ড).pdf/৪৫১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পতিতা ঋষির নয়ন মিথ্যা হেরে না, ঋষির রসনা মিছে না কহে । বৃদ্ধ, বিষয়-বিষ-জর্জর, হেরিছ বিশ্ব দ্বিধার ভাবে, নগরীর ধূলি লেগেছে নয়নে, আমারে কি তুমি দেখিতে পাবে ? আমিও দেবতা, ঋষির আঁখিতে এনেছি বহিয়া নূতন দিবা, অমৃত-সরস আমার পরশ, আমার নয়নে দিব্য বিভা ৷ আমি শুধু নহি সেবার রমণী মিটাতে তোমার লালসাক্ষুধা । তুমি যদি দিতে পূজার অর্ঘ্য . আমি সঁপিতাম স্বৰ্গসুধা । দেবতারে মোর কেহ ত চাহেনি, নিয়ে গেল সবে মাটির ঢেলা, দূর দুর্গম মনোবনবাসে পাঠাইল র্তারে করিয়া হেলা । সেইখানে এল আমার তাপস, সেই পথহীন বিজন গেহ,— স্তব্ধ নীরব গহন গভীর যেথা কোনোদিন আসেনি কেহ । 8○°