পাতা:কাব্যগ্রন্থ (পঞ্চম খণ্ড).pdf/৭৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চিত্রাঙ্গদা সে ফুলের মত প্রভু এত সুমধুর, এত স্থকোমল, এত সম্পূর্ণ সুন্দর। দোষ আছে, গুণ আছে, পাপ আছে, পুণ্য আছে ; কত দৈন্য আছে ; আছে আজন্মের কত অতৃপ্ত তিয়াষা । সংসার-পথের পাস্থ, ধূলিলিপ্ত বাস, বিক্ষত চরণ ; কোথা পাব কুসুম-লাবণ্য, দুদণ্ডের জীবনের অকলঙ্ক শোভা ! কিন্তু আছে অক্ষয় অমর এক রমণী-হৃদয় ! দুঃখ সুখ আশা ভয় লজ্জা দুর্বর্বলতা— ধূলিময়ী ধরণীর কোলের সন্তান, তা’র কত ভ্ৰান্তি, তা’র কত ব্যথা, কত ভালবাসা, মিশ্রিত জড়িত হ’য়ে আছে এক সাথে —আছে এক সীমাহীন অপূর্ণতা, অনন্ত মহৎ । কুসুমের সৌরভ মিলায়ে থাকে যদি, এইবার সেই জন্ম-জন্মান্তের সেবিকার পানে চাও ! সূর্য্যোদয় (অবগুণ্ঠন খুলিয়া ) আমি চিত্রাঙ্গদা । রাজেন্দ্রনন্দিনী । হয় ত পড়িবে মনে, সেই একদিন Wと8