পাতা:কাব্যগ্রন্থ (সপ্তম খণ্ড).pdf/১৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মধ্যাহ্নে নগর মাঝে পথ হ’তে পথে আজি হেমন্তের শাস্তিব্যাপ্ত চরাচরে মাঝে মাঝে কত বার ভাবি কৰ্ম্মহীন আবার আমার হাতে বীণা দাও তুলি এ আমার শরীরের শিরায় শিরায় দেহে অার মনে প্রাণে হ’য়ে একাকার তুমি তবে এস নাথ, বসে শুভক্ষণে ক্রমে স্নান হ’য়ে আসে নয়নের জ্যোতি বৈরাগ্য সাধনে মুক্তি, সে আমার নয় তোমার ভুবন মাঝে ফিরি মুগ্ধ সম নির্জন শয়ন মাঝে কালি রাত্রিবেলা তখন করিনি নাথ কোনো আয়োজন কারে দূর নাহি কর । যত করি দান কালি হাস্তে পরিহাসে গানে আলোচনে কোথা হ’তে অসিয়াছি নাহি পড়ে মনে মহারাজ, ক্ষণেক দর্শন দিতে হবে প্রভাতে যখন শঙ্খ উঠেছিল বাজি” হে রাজেন্দ্র, তব হাতে কাল অন্তহীন তোমার ইঙ্গিতখানি দেখিনি যখন তব পূজা না আনিলে দণ্ড দিবে তারে সেই ত প্রেমের গৰ্ব্ব ভক্তির গৌরব কত না তুষারপুঞ্জ আছে সুপ্ত হয়ে মৰ্ত্তবাসীদের তুমি যা দিয়েছ প্ৰভু যে ভক্তি তোমারে ল’য়ে ধৈর্য্য নাহি মানে 9/o 8 × 8२ 8 L 88 86t وع 8 8 ዓ 8bア 8 సె G o (t ) @ २ ○ ○ & 8 (? (R وی ) ft) « ፃ ○ ゲ (t సె لا وه جد وف (يامانا 8 وما