পাতা:কাব্যগ্রন্থ (সপ্তম খণ্ড).pdf/৩৮১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


উৎসর্গ ૨૨ আছি আমি বিন্দুরূপে, হে অন্তরযামা, আছি আমি বিশ্ব-কেন্দস্তলে । “আছি আমি” এ কথা স্মরিলে মনে মহান বিস্ময় আকুল করিয়া দেয়, স্তব্ধ এ হৃদয় প্ৰকাণ্ড রহস্যভারে । “আছি আর আছে” অন্তহীন আদি প্রহেলিকা, কার কাছে শুধাইব অর্থ এর ? তত্ত্ববিদ তাই কহিতেছে, “এ নিখিলে আর কিছু নাই, শুধু এক আছে।” করে তা’র একাকার অস্তিত্ব-রহস্য রাশি করি অস্বীকার । একমাত্র তুমি জান এ ভব-সংসারে যে আদি গোপন তত্ত্ব,—আমি কবি তা’রে চিরকাল সবিনয়ে স্বীকার করিয়া তাপার বিস্ময়ে চিত্ত রাখিব ভরিয়া ।