পাতা:কৃষিতত্ত্ব - নীলকমল লাহিড়ী.pdf/১৩১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

কৃষিতত্ত্ব । SR হিন্দুদিগের ত্রয়োদশী তিথিতে ইহা ভক্ষণীয় নয়। হিন্দুরা নিরবচ্ছিন্ন শুভ্ৰবৰ্ণ বাৰ্ত্তাকুও ভক্ষণ করে না । ug: করাল ত্ৰিপুট । कक्ष । লঙ্কা মরিচ, গাছমরিছ, আকালী । ইহা কঠিন। খিয়ার ও অধিক বালির ভাগ বিশিষ্ট মৃত্তিকাতে উত্তম জন্মে না। পলি এবং চিকণ ও সমভাগ বালি বিশিষ্ট মৃত্তিকাতে উত্তম জন্মে। ইহার ক্ষেত্রে প্রচুর পরিমাণে সার দেওয়া কৰ্ত্তব্য। ইহার নিমিত্ত উচ্চ অথচ সরস মৃত্তিক মনোনীত করিবে । বঙ্গদেশের অনেক স্থানে ইহার আবাদ হয়। রঙ্গপুর, বগুড়া, কুচবিহার, জলপাইগুড়ি প্রভৃতি স্থানে অধিক জন্মিয় থাকে। লঙ্কা নানা জাতীয় । সৰ্ব্বত্র যে লঙ্কার সর্বদা ব্যবহার হয় তাহা এক জাতি, তরমুজি এক জাতি, ইহা গোলাকার হয়। ধান্য লঙ্কা (ধানুয়া মরিচ ) ইহা ক্ষুদ্রাকার কিন্তু অতিশয় কটু ( তীব্র ঝাল) গারো পৰ্ব্বতে হরিদ্র বর্ণ বৃহদাকার এক প্রকার লঙ্কা জন্মে, তাহাতে কিছু মাত্র ঝাল নাই। তরকারীতে খাদ্য । এতদ্ব্যতীত দেশীয় বিদেশীয় এবং আরও অনেক প্রকার লঙ্কা আছে। উপযুক্ত মত চেষ্টা করিলে সকল সময়েই ইহার চার জন্মান যাইতে পারে বিশেষ আষাঢ় ও শ্রাবণ এবং আশ্বিন ও কাৰ্ত্তিক মাসই চার জন্মাইবায় পক্ষে অতি প্ৰশস্ত। এই সময়ে যে চার জন্মান যায় তাহাতে ফল অধিক হয় । উচ্চ সরস সীসার অল্প স্থান খনন করিয়া মৃত্তিকা ধূলিবৎ চুৰ্ণ করিবে: এবং ঘাস মুথাদি বাছিয়া তাহাতে বীজ বপন করিয়া বীজের আচ্ছাদন স্বরূপ আতি অল্প পরিমাণে ধূলিবৎ মৃত্তিকা উপরে চাপা দিবে। অন্ধুরোদগম হইবার পূৰ্ব্বে প্রতি দিবস সন্ধ্যার সময়ে কিঞ্চিৎ জল দেওয়া কৰ্ত্তব্য। এই সময়ে অধিক বৃষ্টি হইলে বীজ সকল অধিক মৃত্তিকার নীচে প্রবিষ্ট হয় ও এক এক স্থানে অনেক বীজ একত্রিত হইয়া বিশেষ অনিষ্ট হয়। ওরূপ ঘটিবার সম্ভাৰনা দেখিলে দারমা। আচ্ছাদন দেওয়া উচিত। ক্যাপসিকম, বাডস আই ( ১৬ )