পাতা:কৃষিতত্ত্ব - নীলকমল লাহিড়ী.pdf/১৪০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

S\jo কৃষিতত্ত্ব । উত্তম জন্মে । বিশেষতঃ বর্ষাসময়ে জল উঠিয়া যে স্থানে পাচ ছয় ইঞ্চির অধিক নূতন পলি মাটি পড়ে, সেই স্থানে অতি উত্তম উৎপন্ন হয়। যে ক্ষেত্রে বর্ষার সময়ে জল উঠিয়া দুই তিন দিবসের অধিক বদ্ধ থাকে,এমত স্থানে ইহার আ• বাদ হইতে পারে না । যাহাতে মাঘ মাস হইতে আশ্বিন মাস পৰ্য্যন্ত জল বদ্ধ হইয়া না থাকে। এই রূপ ক্ষেত্ৰ মনােনীত করা। কৰ্ত্তব্য। চারা ছোট থাকিতে ক্ষেত্রে জল বদ্ধ হইলে চারা মরিয়া যায়। গাছ বড় হইয়া জল বদ্ধ হইলে গাছের যে অংশ পৰ্যন্ত জল জমে, ততদূর দীর্ঘ দীর্ঘ শিকড় বহির্গত হইয়া নষ্ট হয়। ইহার ক্ষেত্রে প্রতি বৎসর প্রচুর পরিমাণে সার দিতে হয়। গো এবং মহিষের বিষ্ঠার সাব উপযোগী ! তন্মধ্যে মহিষের বিষ্ঠার সার বিশেষ উপকারী । এক্ষণে বঙ্গদেশেৰ বহুস্থানে ইহার আবাদ হইতেছে । রঙ্গপুর ও গোয়াল পাড়াব্য কোষ্টা অধিক উৎপন্ন হয়। তন্মধ্যে রঙ্গপুরের পূর্বভাগ গোয়াল পাড়ার পশ্চিম ভাগ ও ব্ৰহ্মপুত্র নদের চর্যসকলের কোষ্টা বিশেষ প্ৰসিদ্ধ এবং সৰ্ব্বোত্তম । গারোহিল জিলার পর্বত্য উপত্যকাতেও সুদীর্ঘ ও অতি উত্তম কোষ্টা জন্মে। এক্ষণে ইহার কৃষিকাৰ্য্যে বিলক্ষণ লাভ হয় । এই সকল স্থানের লোকের কোষ্টা দ্বারা দুরবস্তু। দূব মাঘ মাসের শেষ হইতে চৈত্র মাস পৰ্য্যন্ত বীজ বপনের উপযুক্ত সময় । চৈত্র মাসে বৃষ্টি না হইলে বৈশাখ মাসে ও বীজ বপন করা যাইতে পারে। এক বিথা ভূমিতে চারি সেরের অধিক বীজ বপন করিতে ट का! ! ক্ষেত্ৰ আষাঢ় মাস হৃষ্টতে চাষ আরম্ভ করিতে হয়। এই মাস হইতে প্ৰতি মাসে এক একবার চাষ দিয়া রাখিবে, এবং প্রতিমাসেই উপযুক্ত মত সার দিবে } তদনন্তর মাঘ মাসের শেষাৰ্দ্ধ হইতে যখন যে ক্ষেত্রে বীজ বপন করিবে, সেই ক্ষেত্রে অধিক পরিমাণে সারা দিয়া অনূ্যন পাঁচবার উত্তমরূপে চাষ দিবে। এবং ঘাস মুখাদি বাছিয়া ঢেলা ভাঙ্গিয়া মৃত্তিক। চূৰ্ণবৎ করিয়া মই টানিয়া