পাতা:কৃষিতত্ত্ব - নীলকমল লাহিড়ী.pdf/১৪৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।

কৃষিতত্ত্ব । SS)(t নূতন মৃত্তিক চাপা দিয়া রাখিলে পুনৰ্ব্বার চারা বহির্গত হয়। এই রূপে বহুকাল পৰ্য্যন্ত হইতে থাকে । পুষ্প হইবার উপক্রম দেখিলেই গাছ কাটিয়া লইবে । কৰ্ত্তনের পর গৃহের মধ্যে পালা করিয়া তাহার উপর খড়ি চাপা দিয়া রাখিবো। এক রাত্ৰি এই প্রকারে রাখিয়া পর দিন প্ৰাতে খড় ফেলিয়া এক একটা গাছ লইয়া উপরের নীল ঝিনুক দ্বারা চাচিয়া রৌদ্রে শুষ্ক করিবে। পরে আট বান্ধিয়া গৃহে মাচার উপর রাখিবে । অবসর ক্ৰমে সন্ধ্যার সময়ে ঐ সকল আর্টি বহিরে রাখিবে । রাত্ৰিতে নীহার লাগিলেই সুত্ৰ উঠাইবার সুবিধা হয়। প্রাতে গাছ ভাঙ্গিয়া সুত্র পৃথক করিয়া লইতে হয়। ইহার দ্বারা জাল ও ডোর প্রস্তুত হয়। ইহার অ্যাস যে প্রকার উত্তম সূক্ষ্ম পরিস্কার ও শক্ত তাহাতে বোধ হয়। ইহা দ্বারা ভাল ভাল কাপড় ও নানা প্রকার শিল্পকাৰ্য্য হইতে পারে। রেশমে যে কাজ হয় ইহাতেও সেই সেই কাজ হইতে পারে। LL LT TTLTLLLSLLSLLLeLMLLLLLSLSLLLLLL বহুনেত্ৰ, আনারস । ইহ প্ৰায় সকল প্রকার মৃত্তিকাতেই জন্মে। চিরুণ মৃত্তিকার ভাগ অধিক এইরূপ দোয়াস মৃত্তিক। বিশিষ্ট উচ্চ ক্ষেত্র প্রশস্ত। ছায়া বিশিষ্ট স্থানের গাছ ‘তেজস্বী এবং তাহার ফল বৃহদাকার হয়। নীরস মাত্তিকাতে ফল বড় হয় না। किछु ज्वां डॉल श् । ইহা বঙ্গদেশের প্রায় সর্বত্রই উৎপন্ন হয়। শীতপ্রধান দেশে জন্মে না । ইহার চারা সকল সময়েই রোপণ করা যায়। বৈশাখ হইতে শ্রাবণ মাসের মধ্যে রোপণ করিলেই ভাল হয় । পুরাতন গাছের নীচে স্বতঃ যে চারা জন্মে, সেই চারা তুলিয়া রোপণ করিতে হয়। ফলের বীজের চারার আকৃতি একটা পত্ৰযুক্ত গুচ্ছ হয়। সেইটী কৰ্ত্তন করিয়া রোপণ করিলে জীবিত ও বদ্ধিত হইয়া উত্তম উত্তম ফল প্রসব করে । ইহার আবাদের নিমিত্ত চাষ আদি কিছু করিতে হয় না। ক্ষেত্রে প্রায় রোপণ করেন। বাটীর নিকটেই রোপণ করিয়া থাকে। বাগানের চতুষ্পাশ্বের্ণ