পাতা:ক্লিওপেট্রা (নবীনচন্দ্র সেন).pdf/১৭

এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।

( ৯ )

উঠিল প্রথমে যবে প্রেম-আবরণ,
দেখিলাম রঙ্গভূমি নায়ক এণ্টনি!
জীবন-সঙ্গীত-স্রোতে খুলিল নাটক,—
ক্লিওপেট্রা-জীবনের চারু অভিনয়।
 “সুখদ প্রমথ অঙ্কে,—ওলো চারমিয়ন!
আছে কি লো মনে? অনন্ত বালুকাময়ী
প্রাচী মরুভূমি—পন্থাহীন, বারিহীন;
পদতলে প্রজ্বলিত বালুকা-অনল;
তৃষ্ণাগ্নি হৃদয়ে ; শিরে উল্কা রাশি রাশি,
শত্রু-শস্ত্র-বিনির্গত, হতেছে বর্ষণ;
তবু অতিক্রমি হেন দুস্তর প্রান্তর
বীরভার, উড়াইয়া ইন্দ্রজালে যেন,
শত্ৰু-সৈন্যচয়, শুষ্ক পত্ররাশি যেন
ভীম প্রভঞ্জনে হায়! প্রবেশিল যবে
দিগ্বিজয়ী রোম-সৈন্য মিশর নগরে?
লতা গুল্ম তরু তৃণ দলিয়া চরণে,
পশে গজযূথ যথা কমল-কাননে!
বিজয়ী বীরেন্দ্র-ব্যূহ-নগর-প্রবেশ
নিরখিতে, বসেছিনু অলিন্দে বিষাদে,
চিত্ত কৌতূহলময়! পদতলে মম