প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:গল্পগুচ্ছ (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/১৪৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দরাশা ●在邻 দেখিলাম, তাঁথমন্দিরে সন্ধ্যারতিকালে তপস্বিনীর ভক্তিগদগদ একাগ্র মতি দেখিলাম, তাহার পরে এই দাজিলিঙে ক্যালকাটা রোডের প্রান্তে প্রবীণার কুহেলিকাচ্ছন্ন ভন্নহৃদয়ভারকাতর নৈরাশ্যমতিও দেখিলাম—একটি স্কুমার রমণীদেহে ব্ৰাহ্মণমসলমানের রক্ততরঙ্গের বিপরীত সংঘর্ষজনিত বিচিত্র ব্যাকুল সংগীতধ্বনি সন্দের সসম্পণে উদভাষায় বিগলিত হইয়া আমার মস্তিকের মধ্যে পদিত হইতে লাগিল। চক্ষ খালিয়া দেখিলাম, হঠাৎ মেঘ কাটিয়া গিয়া নিখ রৌদ্রে নিমল আকাশ ঝলমল করিতেছে, ঠেলাগাড়িতে ইংরাজ রমণী ও অলপঠে ইংরাজ পর্যগণ বায়সেবনে বাহির হইয়াছে, মধ্যে মধ্যে দই-একটি বাঙালির গলাবন্ধবিজড়িত মুখমণ্ডল হইতে আমার প্রতি সকৌতুক কটাক্ষ বৰ্ষিত হইতেছে। দ্রুত উঠিয়া পড়িলাম, এই সযোলোকি অনাবত জগৎদশ্যের মধ্যে সেই মেঘাচ্ছন্ন কাহিনীকে আর সত্য বলিয়া মনে হইল না। আমার বিশ্বাস আমি পবতের কুয়ালার সহিত আমার সিগারেটের ধর্ম ভূরিপরিমাণে মিশ্রিত করিয়া একটি কল্পনাখণ্ড রচনা করিয়াছিলাম— সেই মসলমানব্রাহ্মণী, সেই বিপ্লবীর, সেই যমুনাতীরের কেল্লা কিছুই হয়তো সত্য নহে । বৈশাখ ১৩o৫