পাতা:গল্পগুচ্ছ (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/২১৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সদর ও অন্দর 비율( সে কহিল, রাজার আদেশে বিপিনবাবর সেবাতেই তাহার দিন কাটিয়া যায়। রানী কহিলেন, “ইস, বিপিনবাব ষে ভারি নবাব দেখিতেছি।” পরদিন হইতে পটে বিপিনের উচ্ছিষ্ট ফেলিয়া রাখিত; অনেকসময় তাহার অন্ন ঢাকিয়া রাখিত না। অনভ্যস্ত হতে বিপিন নিজের অশ্নের থালি নিজে মাজিতে লাগিল এবং মাঝে মাঝে উপবাস দিল; কিন্তু ইহা লইয়া রাজার নিকট নালিশ ফরিয়াদ করা তাহার স্বভাববিরদ্ধে। কোনো চাকরের সহিত কলহ করিয়া সে আত্মাবমাননা করে নাই। এইরপে বিপিনের ভাগ্যে সদর হইতে আদর বাড়িতে লাগিল, অন্দর হইতে অবজ্ঞার সীমা রহিল না। এ দিকে সভদ্রাহরণ গীতিনাট্য রিহাশাল-শেষে প্রস্তুত। রাজবাটির অঙ্গনে তাহার অভিনয় হইল। রাজা স্বয়ং সাজিলেন কৃষ্ণ, বিপিন সাজিলেন অজন। আহা, অজানের যেমন কন্ঠ তেমনি রপে। দশকগণ ধন্য ধন্য’ করিতে লাগিল। রাত্রে রাজা আসিয়া বসন্তকুমারীকে জিজ্ঞাসা করিলেন, “কেমন অভিনয় দেখিলে।” রানী কহিলেন, "বিপিন তো বেশ অজন সাজিয়াছিল। বড়োঘরের ছেলের মতো তাহার চেহারা বটে, এবং গলার স.রটিও তো দিব্য!” রাজা বলিলেন, “আর, আমার চেহারা বুঝি কিছুই নয়, গলাটাও বুঝি মন্দ ?" রানী বলিলেন, “তোমায় কথা আলাদা।" বলিয়া পনরায় বিপিনের অভিনয়ের কথা পাড়িলেন। রাজা ইহা অপেক্ষা অনেক উচ্ছসিত ভাষায় রানীর নিকট বিপিনের গুণগান করিয়াছেন; কিন্তু অদ্য রানীর মথের এইটুকুমাত্র প্রশংসা শুনিয়া তাঁহার মনে হইল, বিপিনটার ক্ষমতা যে পরিমাণে, অবিবেচক লোকে তদপেক্ষা তাহাকে ঢের বেশি বাড়াইয়া থাকে। উহার চেহারাই বা কী, আর গলাই বা কী এমন। কিয়ৎকাল পাবে" তিনিও এই অবিবেচকশ্রেণীর মধ্যে ছিলেন ; হঠাৎ কী কারণে তাঁহার বিবেচনাশক্তি बाफुिझा छैठेळा ! * পরদিন হইতে বিপিনের আহারাদির সব্যবস্থা হইল। বসন্তকুমারী রাজাকে কহিলেন, "বিপিনকে কাছারি-ঘরে আমলাদের সহিত বাসা দেওয়া অন্যায় হইয়াছে। হাজার হউক, এক সময়ে উহার অবস্থা ভালো ছিল।” রাজা কেবল সংক্ষেপে উড়াইয়া দিয়া কহিলেন, “হাঁঃ ” রানী অনুরোধ করিলেন, “খোকার অন্নপ্রাশন উপলক্ষে আর-একদিন থিয়েটার দেওয়া হউক।” রাজা কথাটা কানেই তুলিলেন না। একদিন ভালো কাপড় কোঁচানো হয় নাই বলিয়া রাজা পটে চাকরকে ভৎসনা করাতে সে কহিল, "কী করিব, রানীমার আদেশে বিপিনবাবরে বাসন মাজিত্তে ও সেবা করিতেই সময় কাটিয়া যায়।” রাজা রাগিয়া উঠিয়া কহিলেন, “ইস, বিপিনবাব তো ভারি নবাব হইয়াছেন, নিজের বাসন বুঝি নিজে মাজিতে পারেন না!" বিপিন পনম'ষিক হইয়া পড়িল। রানী রাজাকে ধরিয়া পড়িলেন, সন্ধ্যাবেলায় তাঁহাদের সংগীতালোচনার সময় পাশের ঘরে থাকিয়া পদার আড়ালে তিনি গান শুনিবেন, বিপিনের গান তাঁহার ভালো লাগে। রাজা অনতিকাল পরেই পববং অত্যন্ত নিয়মিত সময়ে শয়ন ভোজন