প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:গল্পগুচ্ছ (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৩৩

এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
২৪৪
গল্পগুচ্ছ

গাড়ি অগ্রসর হইয়া চলিল, গানের পদ ক্রমে দূর হইতে দূরতর হইয়া কানে প্রবেশ করিতে লাগিল

   ওগাে  নিষ্ঠুর, ফিরে এসাে হে!

   আমার করুণ কোমল, এসাে!

   ওগাে  সজলজলদস্নিগ্ধকান্ত সুন্দর, ফিরে এসাে।

 গানের কথা ক্রমে ক্ষীণতর অস্ফুটতর হইয়া আসিল, আর বুঝা গেল না। কিন্তু গানের ছন্দে শশিভূষণের হৃদয়ে একটা আন্দোলন তুলিয়া দিল, তিনি আপন মনে গুনগুন করিয়া, পদের পর পদ রচনা করিয়া যােজনা করিয়া চলিলেন, কিছুতে যেন থামিতে পারিলেন না-

   আমার  নিতি-সুখ, ফিরে এসাে।

   আমার  চিরদুখ, ফিরে এসাে!

   আমার  সব-সুখ-দুখ-মন্থন-ধন, অন্তরে ফিরে এসাে!

   আমার  চিরবাঞ্ছিত, এসাে!

   আমার  চিতসঞ্চিত, এসাে!

   ওহে চঞ্চল, হে চিরন্তন,

   ভুজ  -বন্ধনে ফিরে এসাে!

   আমার  বক্ষে ফিরিয়া এসাে,

   আমার  চক্ষে ফিরিয়া এসাে,

   আমার  শয়নে স্বপনে বসনে ভূষণে নিখিল ভুবনে এসাে!

   আমার  মুখের হাসিতে এসাে হে,

   আমার  চোখের সলিলে এসাে!

   আমার  আদরে, আমার ছলনে,

   আমার  অভিমানে ফিরে এসাে!

   আমার  সর্বস্মরণে এসাে,

   আমার  সর্বস্মরণে এসাে,

   আমার  ধরম করম সােহাগ শরম জনম মরণে এসাে!

 গাড়ি যখন একটি প্রাচীরবেষ্টিত উদ্যানের মধ্যে প্রবেশ করিয়া একটি দ্বিতল অট্টালিকার সম্মুখে থামিল তখন শশিভূষণের গান থামিল।

 তিনি কোনাে প্রশ্ন না করিয়া ভৃত্যের নির্দেশক্রমে বাড়ির মধ্যে প্রবেশ করিলেন।

 যে ঘরে আসিয়া বসিলেন, সে ঘরের চারি দিকেই বড়ো বড়ো কাচের আলমারিতে বিচিত্র বর্ণের বিচিত্র মলাটের সারি সারি বই সাজানাে। সেই দৃশ্য দেখিবামাত্র তাঁহার পুরাতন জীবন দ্বিতীয়বার কারামুক্ত হইয়া বাহির হইল। এই সােনার জলে অঙ্কিত, নানা বর্ণে রঞ্জিত বইগুলি আনন্দলােকের মধ্যে প্রবেশ করিবার সুপরিচিত রত্নখচিত সিংহদ্বারের মতাে তাঁহার নিকটে প্রতিভাত হইল।

 টেবিলের উপরেও কী কতকগুলি ছিল। শশিভূষণ তাঁহার ক্ষীণদৃষ্টি লইয়া ঝুঁকিয়া পড়িয়া দেখিলেন, একখানি বিদীর্ণ স্লেট, তাহার উপরে গুটিকয়েক পুরাতন খাতা, একখানি ছিন্নপ্রায় ধারাপাত, কথামালা এবং একখানি কাশীরামদাসের মহাভারত।

 স্লেটের কাঠের ফ্রেমের উপর শশিভূষণের হস্তাক্ষরে কালি দিয়া খুব মােটা করিয়া