পাতা:গৌতমীয়-তন্ত্রম্‌.djvu/১২৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১২ e গৌতমীয়তন্ত্ৰম্ কামক্রোধাদিদোষোখ সৰ্ব্বদু:খানয়ন্ত্রণাৎ যন্ত্রমিত্যান্থয়েতস্মিন দেবঃ প্রণাতি পূজিত ॥ ১৯ পদ্মমষ্টপলাশঞ্চ চতুরস্ৰং সুলক্ষণম্। চতুৰরিসমাযুক্তং কামগৰ্ব্বিতকণিকম্ ॥২০ ॥ সামান্তৰ্যন্ত্রমুদিষ্টমষ্টাদশাক্ষরং শৃণু । চতুরস্রং চতুদ্বারং পদ্মমষ্টদলান্বিতম্ ॥ ২১ ॥ যটুকোণমধ্যে কামাখ্যঃ সপ্তদশাণবেষ্টিতম্। ষড়ক্ষরং মমুবরং ষটকোণে বিলিথেত্ততঃ ॥ ২২ ॥ এতদ্ব্যন্ত্ৰং মহাভাগ কৃপয়া কথিতং তৰ। অস্ত বিজ্ঞানমাত্রেণ কুষ্ণাত্ম সাধকে ভবেৎ ॥ ২৩ জন্মের মুকুতিতে যদি একটি শালগ্রামশিলা প্রাপ্ত হওয়া যায়, তাছা হইলে আর সেই মানবের পুনর্জন্ম দুঃখ ভোগ করিতে হয় না। ঐ শিল যদি আবার গোম্পদচিহ্নিত হয়, তাহার ত কথাই নাই। ঐ শালগ্রামশিল কামক্রোধাদি দোষজন্য সকল দুঃখ দূর করে বলিয়া উহার নাম যন্ত্র হইয়াছে। ঐ শিলাযন্ত্রে পূজা করিলে, শ্ৰীহরি সন্তুষ্ট হন। চতুদ্বর্ণর সমাযুক্ত চতুষ্কোণ কামগৰ্ব্বিতকণিক অষ্টপত্র সুলক্ষণ পদ্মই সামান্তৰ্যন্ত্র। এক্ষণে অষ্টাদশাক্ষর মন্ত্রের যন্ত্র কথিত হইতেছে। ঐ চতুদ্বারসমাযুক্ত, চতুষ্কোণ ও অষ্টাদশ পদ্মাকার হইবে। অষ্টকোণ মধ্যে কামবীজ লিখিতে হইবে । সপ্তদশবর্ণাত্মক মন্ত্র উহাকে পরিবেষ্টন করিয়া থাকিবে , ঘট্টকোণ ষড়ক্ষর মন্ত্র লিখিতে হইবে। আমি তোমার নিকট এই যন্ত্র বলিলাম। এই ষন্ত্রের জ্ঞানমাত্র সাধক কৃষ্ণাত্মা