পাতা:গৌতমীয়-তন্ত্রম্‌.djvu/১৮৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গৌতমীয়তন্ত্রম Yዓል অনয় সৰ্ব্বমন্ত্রাণাং জপঃ সৰ্ব্বসমৃদ্ধিদঃ । নিত্যং জপং করে কুৰ্য্যtল্প ক্ষু কাম্যমবোধনাৎ ॥ ৪৭ ৷ আরভ্যfনামিকণমধ্যাৎ পরিবত্তেন বৈ ক্ৰমাৎ । তর্জনীমূলপৰ্য্যন্তং জপেদশমু পৰ্ব্বস্থ ॥ ৪৮ ॥ গোপালতন্ত্রমন্ত্রণাং কক্সমালেয়মৗরিতা । কার্পাসদম্ভবং স্বত্রং পুণাস্ত্রীভিব্বিনিৰ্ম্মিতং ॥ ৪৯ ৷ অথবা পটস্থত্রেণ স্বর্ণসূত্রেণ বা তথা । অনিমাদিকমোক্ষান্তীঃ সিদ্ধয়ঃ স্বর্ণস্ত্রকে ॥ ৫০ ॥ পট্টম্বত্রং বগুকরং ধনপুত্রবিবৰ্দ্ধনং | কাপাসসম্ভব, স্বত্রং ধৰ্ম্মকামীর্থমোক্ষদং ॥ ৫১ ৷ ত্ৰিগুণং ত্রিগুণীকৃত্য গ্রন্থয়েচ্ছিল্পশাশ্বত: | মুখে মুখস্ত সংযোজ্য পুচ্ছে পুচ্ছং নিয়োজন্মেত ॥ ৫২ ৷ এই মালাতে যে কোন মন্ত্র জপ করিতে পারা যায়, তাহারই সিদ্ধি হইয়া থাকে। নিত্যজপ করেই করা যাইতে পারে । অনামিকার মধ্য হইতে পরিবৃত্তিক্রমে তর্জনীর মূল পর্য্যন্ত দশটি পর্কে জপ করিবেন ॥ ৪১-৪৮ ॥ ইহাই গোপালতন্ত্রোক্ত মন্ত্রের করমীলা । পুণাস্ত্রীস্বত্রনিৰ্ম্মিত কাপাস বা পট্টম্বত্র অথবা স্বর্ণসুত্র দ্বারা মালা গাথিবে। স্বর্ণক্ষত্র-প্রথিত মালায় জপ করিলে অনিমাদি মোক্ষান্ত সকল সিদ্ধিই লাভ হয়। পট্টস্বত্র-গ্রথিত মালা বশ্যকর এবং ধনপুত্রের বৃদ্ধিকারক, কার্পাসস্বত্র-গ্রথিত মালী ধৰ্ম্মকামীর্থমোক্ষপ্রত্ন ॥ ৫১ ৷ ত্রিগুণ সূত্রকে আবার ত্রগুণীকৃত করিয়া শিল্পখাস্ত্রানুসারে মাল৷ গাৰিবে। মালাগুলির মুখে মুখ এবং