পাতা:গৌতমীয়-তন্ত্রম্‌.djvu/৩৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


cशोङऔञ्चउझम् මර් প্রাণায়মাৎ পরং তত্ত্বং প্রাণায়ামাৎ পরং তপঃ। প্রাণায়ামাৎ পরং জ্ঞানং প্রাণায়ামাৎ পরং পদম্ ॥ ১৫৬ ৷ প্রাণায়ামাৎ পরং যোগ প্রাণারামাৎ পরং ধনম্। নাস্তি নাস্তি পুনর্নাস্তি কথিতং তব সুব্রত ॥ ১৫৭ ৷ বৎসরাভ্যাসযোগেন ব্রহ্মসাক্ষান্তবে ধ্রুবম্। চৈতন্যাবরণং মদ্যুৎ ক্ষীয়তে নাত্র সংশয়ঃ। ১৫৮ ৷ প্রাণারামং বিনা মুক্তিমার্গো নাস্তি ময়োতিম্। প্রাণায়ামং বিনা যচ্চ সাধনং নিস্ফলং ভবেৎ ॥ ১৫৯ { প্রাণায়ামেন মুনয়: সিদ্ধিমাপুর্ন চান্তথা। প্রাণায়ামপরো যোগী ন যোগী শিব এব সঃ । ১৬০ ৷ গমনাগমনং বায়োঃ প্রাণস্ত ধারণং তথা । প্রাণায়াম ইতি প্রোক্তে যোগশাস্ত্রবিশারদৈঃ ॥ ১৬১ ৷ তাহারই নাম সগর্ভ প্রাণায়াম। আর এতদ্ভিন্ন প্রাণায়ামের নাম নিগর্ভপ্রাণায়াম। প্রাণায়াম হইতেই পরতত্ত্বের সাক্ষাৎ লাভ হয় । প্রাণায়ামই পরম তপ, প্রাণায়াম হইতেই পরমজ্ঞান ও পরমপদ লাভ হয়। প্রাণায়ামই শ্রেষ্ঠ যোগ এবং উহাই পরম ঐশ্বর্ঘ্যের সাধক। প্রাণায়াম হইতে শ্রেষ্ঠ আর কিছুই নাই। প্রাণারাম এক বৎসরকাল অভ্যাস করিলে, ব্ৰহ্মজ্ঞানলাভ হয়। যে কিছু অবিদ্যামালিন্য আমাদিগের জীবচৈতন্তকে আবরণ করিয়া রাখিয়াছে, একমাত্র প্রাণায়ামেই তাহার ক্ষয় হয় । প্রাণায়াম ভিন্ন আর মুঞ্জিপথ নাই। প্রাণায়ামভিন্ন সকল সাধনই বিফল হয়। মুনিগণ প্রাণয়াম দ্বারাই সকল সিদ্ধি লাভ করিয়াছেন । যে যোগী প্রাণায়ামপরায়ণ তিনি সাক্ষাৎ শিৰতুল্য ॥ ১৫০-১৬০ ॥ যোগশাস্ত্রাভিঙ্গ