পাতা:গৌতমীয়-তন্ত্রম্‌.djvu/৩৮২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


গৌতমীয়তথম \©ዓዓ আদেী মন্ত্রং ততো নাম সাধ্যাক্ষরমথে লিখেৎ । এবমেৰং ত্রিধা কৃত্বা ভবেন্মুক্তিবিদৰ্ভিতম্ ॥ ১৮ ॥ সৰ্ব্বব্যাধিহরং প্রোক্তং ভূতাপম্মারমর্দনম্। একৈকং সাধ্যবর্ণন্ত কৃত্বা মন্ত্রবিদৰ্ভিতম্ ॥ ১৯ ॥ পূৰ্ব্ববৎ কথিতঞ্চান্তভস্যাদ্যন্তং প্রকল্পয়েৎ । বিদর্ভগ্রথিতং নাম মন্ত্ররাজমমুত্তমম্ ॥ ২• ॥ সৰ্ব্বকৰ্ম্মকরং প্রোক্তং সৰ্ব্বৈশ্বৰ্য্যফলপ্রদম্। এবমেতে প্রয়োগাঃ সু্যঃ সিদ্ধমন্ত্রস্য সিদ্ধিদীঃ ॥ ২১ ॥ অগাপরং প্রবক্ষ্যামি মন্ত্রসিদ্ধেস্তু লক্ষণম্। যজ জ্ঞাত্বা সাধকশ্রেষ্ঠে মন্ত্রসিদ্ধিং লভেদূঞ্জবম্ ॥ ২২ ॥ সম্যগ্নকুষ্টিতে মন্ত্রে যদি সিদ্ধিৰ্ন জায়তে । পুনস্তেনৈব কৰ্ত্তব্যং ততঃ সিদ্ধে ভবেদধ্রুবম্ ॥ ২৩ ॥ সাধিত ও জীবগণের অমৃতত্ব সম্পাদিত হইয়া থাকে। প্রথমে মন্ত্র, পরে নাম ও পুনরায় সাধ্যাক্ষর লিখিবে। এইরূপ দুই বার করিলে মুক্তিবিদৰ্ভিত নামে অভিহিত হয়। ইহা দ্বারা সৰ্ব্বব্যাধিহরণ ও ভূতাপম্মারবিনাশ সমাহিত হইয় থাকে। একৈক সাধ্যবর্ণ মন্ত্রবিদৰ্ভিত করিয়া পূৰ্ব্বের নিয়মানুসারে কথিত তাহার অন্ত আদ্যন্ত কল্পনা করিবে। ইহার নাম বিদর্ভ গ্রথিত। ইহা উৎকৃষ্ট মন্ত্ররাজ । ইহা দ্বারা সৰ্ব্বকৰ্ম্মসাধন ও সৰ্ব্বৈশ্বৰ্য্যফলসংঘটন হয়। এইরূপে এই সকল প্রয়োগ সিদ্ধমন্ত্রের সিদ্ধি বিধান করে ॥১১১ অনন্তর মন্ত্রসিদ্ধির অন্ততর লক্ষণ বলিব ; যাহা বিদিত হইলে সাধকশ্রেষ্ঠ নিশ্চয়ই মন্ত্রসিদ্ধি লাভ করে । সম্যকু রূপে অনুষ্ঠান করিলেও যদি মন্ত্র সিদ্ধিসাধন না করে, পুনরায় তদনুরূপ বিধান