পাতা:চিঠিপত্র (দ্বাদশ খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১৪৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


থেকে হৃদয়াবেগ মন্থন করে নেওয়া এবং তার আন্দোলনে আপনাকে ছেড়ে দেওয়া তার [ পক্ষে ] সহজ ছিল । যাই হোক আমার এই মত আপনাকে জানালুম এ প্রকাশ করবার জন্তে নয় | শপথ গ্রহণ সম্বন্ধে এও জকে একদা যে পত্র লিখেছিলুম সেটা আপনাকে পাঠাই বোধহয় মডারন রিভিয়ুতে এটা চলতে পারে । আপনার পত্রে লিখেছেন আমার সম্বন্ধে যে সব গঞ্জনাপাকা সম্প্রতি মুখর হয়ে উঠেছে সেগুলি আমার কর্ণগোচর কর! ত নাবশ্যক ও অন্যায় । কিন্তু আমার পক্ষে সেটা সুখকর ন হলে ও তাব প্রয়োজন ছিল । বাইরের অপমানে বিচলিত হ ওয়ার মধ্যে যে আত্মাবমাননা আছে সেইটেতে যখন লজ্জা দেয় তখনি স্পষ্ট করে বুঝতে পারি নিজের মধ্যে আত্মপ্রতিষ্ঠা একান্তই চাই । তুচ্ছ কারণে চিত্তবিক্ষেপের দ্বারা জীবনকে বাৰ্থ করার মতো এত বড়ো আধ্যাত্মিক অপব্যয় আর নেই । sার থেকে নিজেকে বাচাবার অধ্যবসায় অামি গ্রহণ করেছি — আর সময়ই বা কত আছে ? সাধনা সভ্যতা হয়েছে কিনা পদে পদে তার প্রমাণ দরকার করে— যদি একেবারেই তা না পাই তবে অলস শক্তি নিয়ে আত্মবিস্মৃত হবার আশঙ্কা ঘটে । তার চেয়ে বাইরের অবমাননা ও আঘাত অনেক গুণে ভালো । বস্তুত বাইরের অকস্মাৎ আকারণ লাঞ্ছনায় আমাকে কঠোরভাবে বিস্মিত করেছিল বলেই আজ আমি অন্তরতম শাস্তিধামের পথে যাত্রা করতে প্রবৃত্ত হয়েছি— মনে আশা আছে > RS > ミ請>