পাতা:চিঠিপত্র (দ্বাদশ খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/২৩১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


X \S e ৬ মে ১৯৪১ প্রতিভাজনেষু, পুরস্কার অনেক সময় সম্মুখে আসে, কিন্তু হাতে পৌছয় না। কিন্তু সে পুরস্কার প্রায়ই বাইরের দান। যুরোপে যে সম্মান আমাকে আনন্দ দিয়েছিল বস্তুত সে সম্মান নয়, সে অকৃত্রিম প্রীতি। অামার সঙ্গে যুরোপীয় মনের যে সংযোগ ঘটেছিল সে কোন সূক্ষ্ম প্রভাবের পথ দিয়ে তা বলা শক্ত । এই জন্যই সে অহৈতুক হৃদয়ের দান আমাকে পদে পদে এতো তৃপ্তি দিয়েছিল নরওয়ে থেকে আরম্ভ করে প্রাচ্য যুরোপ পর্যন্ত । কারণ আমি বার বাব আপনাদেব বলেছি যে সাহিত্যিক অভিজ্ঞতার ভিত্তিতে যে সম্মান আমি তাব স্থায়িত্বকে বিশ্বাস করি না । ইংলণ্ডে আমার রচনার ভাষা তাদের পরিচিত ভাষা । এই জন্য তার সমাদর প্রথম বিস্ময়ের পর ক্রমেই অনুজ্জ্বল হবার কথা। সেখানে সাহিত্যের ভাষা মূলতই তলিয়ে যাচ্ছে । আমার হাতের ইংরেজী ক্ষণকালের জন্য যতই বিস্ময়কর হোক চিরকালের বন্ধনে তার নোঙর অঁাকড়ে থাকতে পারবে না, সে আমার জানা কথা । সেইজন্য এই সদ্যপাতি সম্মান নিয়ে গব করতে আমার লজ্জা করে । আমার স্বদেশীয়রা র্যার ইতিমধ্যে ইংরেজ সাহিত্যিক সমাজের মধ্যে আত্মীয়তা স্থাপন করেছেন তারা আমার এই আশঙ্কার কথা আপনাকে জানাতে পারবেন। এমন কি এই অশ্রদ্ধায় তারাও ૨ \ ૨