পাতা:চিঠিপত্র (সপ্তম খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১৩৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কথা এত করে এই জন্যে বলচি, যে, সম্প্রতি কিছুদিন থেকে অবস্থার দৈন্য, কৰ্ম্মের বাধা, শরীরের তুৰ্ব্বলতায় আমার জীবনেও একটা ঔদাস্তোর ছায়া ঘনিয়ে এসেছে । কিন্তু সেটাকে চরম বলে স্বীকার করে নিতে পারিনে। সেটা মায়াজাল, তার থেকে নিজেকে স্বতন্ত্র করে দেখতে চাই । ছায়াকে সত্য বলে জানা ভূতের ভয় পাওয়ার মত— যেই বলতে পারব সেটা মিথ্যে, অম্নি তার জোর চলে যাবে। অবসাদের উপছায়াটাকে বার বার বোলো, মিথ্যা, মিথ্যা— তোমার যে-আত্মা সত্য তাকে নিত্যের মধ্যে প্রতিষ্ঠিত বলে নিশ্চিত জানো, প্রতিদিনের আঘাত জর্জরতা কেটে যাক । ইতি ৩ বৈশাখ ১৩৩৪ শুভাকাজক্ষী শ্রীরবীন্দ্রনাথ ঠাকুর > 、Vつ