পাতা:চিঠিপত্র (সপ্তম খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৪৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পারে না— যদি সূফীদের প্রেমের সাধনার বিবরণ পড়ে থাক তবে দেখবে তারা কি আশ্চৰ্য্য বিশুদ্ধ জ্ঞানের সঙ্গে কি অপরিসীম প্রেমের মিলন সাধন করিয়েছেন । তাদের সেই প্রেম কেবল একটা শূন্য ভাবের জিনিষ নয়, তা অত্যন্ত নিকট, অত্যন্ত প্রত্যক্ষ, অত্যন্ত অন্তরঙ্গ অথচ তার সঙ্গে কোনো প্রকার কাল্পনিক জঞ্জালের আবর্জনা নেই । এ সমস্ত কথা এমন করে চিঠির মধ্যে স্পষ্ট করে প্রকাশ করা অসম্ভব । তুমি অনুরোধ করেছ বলে আমি যেমনতেমন করে এই প্রসঙ্গের অতি অল্পমাত্ৰই আভাস দিলুম। এর থেকে কোনো উপকার পাবে বলে আশা করি নে। ইতি ২০শে আষাঢ় [ ১৩১৭ ] শ্রীরবীন্দ্রনাথ ঠাকুর