পাতা:চিঠিপত্র (সপ্তম খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৭৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


وی وعه ২ ফেব্রুয়ারি ১৯১৪ હૈં জোড়াসাকো কলিকাতা কল্যাণীয়াসু নানা উৎপাতে অত্যন্ত উৎপীড়িত হইয়া আছি। কাজও করিতে পারিতেছি না, বিশ্রামও তুলভ হইয়াছে। এ সমস্ত জাল ছেদন করিয়া বাহির হইয়া পড়িবার জন্য চিত্ত উৎসুক হইয়া উঠিয়াছে । আমি বিষয় কৰ্ম্ম দেখি না— যাহারা দেখেন, শুনিয়াছি তাহারা পাবনার উকীল মনোনীত করিয়াছেন । তবু একবার তাহাদিগকে জিজ্ঞাসা করিব । যাহাই হউক, এ সম্বন্ধে আমি নিজের হাতে কোনো কর্তৃত্ব রাখি নাই । y যাহাকে আমার অত্যন্ত প্রয়োজন তিনি আমার চারিদিকে লোক জমা করিয়া লুকাইয়া আছেন। ইহাতে সৰ্ব্বদা মনে আঘাত পাইতেছি। এই ব্যুহ ভেদ করিয়া বাহির হইতে হইবে । সর্বদ যে সমস্ত অপমানের আঘাত পাইতেছি তাহাই আমার যথার্থ পুরস্কার— এই অপমানের অন্ধকারময় আড়াল হইতেই তিনি র্তাহার আলোটি লইয়া হাসিমুখে দেখা দিবেন আমি তোমাদের সকলের কাছে এই আশীৰ্ব্বাদটিই চাই । ইতি ২০ মাঘ ১৩২০ শুভানুধ্যায়ী শ্রীরবীন্দ্রনাথ ঠাকুর UN