পাতা:চিঠিপত্র (সপ্তম খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৭৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


9\ס\ ১ জানুয়ারি ১৯১৫ હૈં শান্তিনিকেতন বোলপুর কল্যাণীয়াসু মা, আমি তোমাকে কয়েকদিন হইল যে চিঠি লিখিয়াছি তাহা এতদিনে বোধ করি পাইয়াছ । আমি ঘুরিয়া ঘুরিয়া বেড়াইতেছিলাম— কাহারো চিঠি পাই নাই কাহাকেও চিঠি লিখি নাই । কিছুদিনের জন্য এখানে আছি আবার ঘুরিতে বাহির হইব এই আমার ইচ্ছা । আমার বাক্যের দ্বারা তোমার চিত্তকে আমি ধ্রুব আশ্রয় দিতে পারি এমন ভগবৎ-প্রভাব আমার নাই এ কথা তুমি নিশ্চয় জানিয়ো । কিন্তু এ কথাও সত্য যে তোমার প্রতি আমি গভীর স্নেহ অনুভব করিয়াছি । তোমাকে দেখি নাই কিন্তু কেমন করিয়া তোমাকে এমন আত্মীয় বলিয়া জানি তাহা আমার নিজের কাছেই আশচর্য্য বলিয়া মনে হয় । নানা লেখায় নানা কাজে লোকসমাজে নানাভাবে আমি আমার পরিচয় দিয়াছি । কেহ ভাল বলে কেহ মন্দ বলে, পুরস্কারও পাই দণ্ডও পাই । কিন্তু যে জায়গায় কোনো সাংসারিক বন্ধন কোনো প্রয়োজনের সম্বন্ধ কোনো দেখাসাক্ষাৎ নাই সেখানে কোনো একজন লোককে আপনার করিয়া পাওয়া হাজার লোকের বাহবা পাওয়ার চেয়ে অনেক বেশি। তাহাতে বুঝিতে পারি জীবনের সাধনার মধ্যে কোথাও কিছু সত্যের রং ধরিয়াছে, \&)ჯ)