পাতা:চিত্রাবলি - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৯৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


চিত্রাবলি ।

  • : হঠাৎ কেহ হয় তো জিজ্ঞাসা করিতে পারেন,--যদুপতির বাড়ীতে পোষ্যবর্গের মধ্যে হলধর বদ্ধনের ছেলে-মেয়ে ছুটকে দেখিতে পাই কেন ? উহার সদগোপ ; কিন্তু ব্রাহ্মণ-পরিবারের পোষ্যমধ্যে পরিগণিত হইল কি প্রকারে ? ইহাও কমলার কৃপা বলিতে হয়। হলধর বদ্ধনের কু-চরিত্রের কথা অনেকেরই বোধ হয় স্মরণ আছে। সে যে কখন কোথায় কোন কুমতলবে পরিভ্রমণ করে, কেহই তাহ বলিতে পারে না। বিশেষত:, কলেরার বৎসরে স্ত্রীর মৃত্যুর পর হইতে সে যে কোথায় চলিয়া গিয়াছে, কোনই সন্ধান নাই । কেহ বলেন,— স্ত্রীকে ওলাউঠা রোগাক্রাপ্ত দেখিয়া আত্মরক্ষার্থ গ্রাম হইতে পলাইবার সময় পথে ওলাউঠাতেই তাহার মৃত্যু হইয়াছে। কেহ বলেন—একটা বদমায়েসীর মোকদময় ধরা পড়িয়া বিগত বৎসরের ভাদ্র মাস হইতে সে জেলে পচিতেছে। যাহাই হউক, হলধর মরুক আর বটুক তাহাতে কাহারও তাদৃশ ক্ষতিবৃদ্ধি নাই ; তবে, তাহার পুত্রকন্ত-গ্লুটির আশ্রয়-প্রাপ্তি-সম্বন্ধে যাহা জনশ্রুতি আছে, তাহাই বলিতেছি। হলধরের স্ত্রীর যখন মুমুঘু অবস্থা, তাহার পুত্রকন্ত দুইটাও তখন ওলাউঠ রোগে আক্রান্ত হইয়াছিল। সেই অবস্থায়, হলধর, স্ত্রী-পুত্র তিনটিকে ফেলিয়া, পলায়ন করে। এ কি ! নাসিক কুঞ্চিত করিলেন যে ? কথাটা, অবিশ্বাস হইল না কি ? বলিবেন কি,-জস্বভাৰক ! জিজ্ঞাসা
  • — .الله

శి