পাতা:ঝঙ্কার - সুরেন্দ্রকৃষ্ণ গুপ্ত.pdf/৬৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

ঝঙ্কার।

৬১


নিস্তব্ধ অর্ণধার, কানন মাঝে—
গাহিল পাখী সন্ধ্যা-সমীরণে;
পুলকে উঠিল
তাহার সে তান,
গগনের কোলে, তারার পায়ে!

গান গেয়ে সন্ধ্যা চলিয়ে গেল,
অভাগা মানব তবু না শিখিল;
প্রেম-গীতি মাঝে,
জগত ভাসিছে,
অন্ধজ্ঞানে ডুবে সকলি হারা’ল!

সন্ধ্যা চ’লে গেল, কি কথা কহিল,
নীরবে ফুটিল যামিনী-হাসি,
তারা অগণন,
ভৎর্সনা করিল,—
পথহারা তারা সকলি সহিল!

জীবন টুটিল, কথা না ফুরা’ল,
উদ্ভ্রান্ত বাণী আপনি উঠিছে।