পাতা:তীর্থরেণু.djvu/৮১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
তীর্থরেণু
 

শৈল-মেখলা সিন্ধুর কুলে গেল গো তারা!
গৃধ্র উড়িল-চলিল সে বান্তামের পানে;
জনম অবধি সারাটা জীবন এমনি ধারা,
কিশোর মুরতি বড় ভাল লাগে মোর নয়ানে।

গৃধ্র উড়িয়া চলে ওই বান্তামের পানে,
পত্তনপুরে পৌঁছি’ গুটায় পক্ষ দুটি;
কিশোর মুরতি বড় ভাল লাগে মোর নয়নে,
তবু ভাল যারে বাসি তার মত নাইক দুটি।

পত্তনপুরে গৃধ্র গুটায় পক্ষ দু’টি,
যুগল কপোত চলেছে উড়িয়া দেখ গো চাহি;
ভাল যারে বাসি তার মত আর নাইক দু’টি,
মরম-দুয়ার খুঁজে নিতে তার তুল্য নাহি।


সন্ধ্যার সুর

ওই গো সন্ধ্যা আসিছে আবার, স্পন্দিত-সচেতন
বৃন্তে বৃন্তে ধূপাধার সম ফুলগুলি ফেলে শ্বাস;
ধ্বনিতে গন্ধে ঘূর্ণি লেগেছে, বায়ু করে হাহুতাশ,
সান্দ্র ফেনিল মূর্চ্ছা-শিথিল নৃত্য-আবর্ত্তন!

৬০