প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:নারীর মূল্য-শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/৭২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ግ» নারীর মূল্য গিয়াছেন, এ-সব কথা অস্বীকার করা যায় না। বস্তুতঃ, তদানীন্তন আরব-রমণীর ভয়ঙ্কর অবস্থার তুলনায় আরবের নব-ধৰ্ম যে নারীকে সহস্র-গুণে উন্নত করিয়াছে, তাহাতে লেশমাত্র সংশয় থাকিতে পারে না । Hornbock, Ricaut প্রভূতি গ্রন্থকারেরা কি ভাবিয়া যে প্রচার করিয়া গিয়াছেন, মুসলমানদের মতে নারীর আত্মা নাই এবং নারীকে তাহারা পশুর মত মনে করে, তাহ বলিতে পারি না। আমি ত কোরানের কোথাও এমন কথা দেখিতে পাই নাই ! বরং কোরানের তৃতীয় অধ্যায়ের শেষের দিকে এই যে একটা উক্তি আছে, মৃত্যুর পর দুষ্কৃতকারীকে ঈশ্বর শাস্তি দেন--তিনি নর-নারীর প্রভেদ করেন না,—তাহা দেখিয়া মনে হয়, মহম্মদ নারীর আত্মা অস্বীকার করেন নাই। কোরানের চতুর্থ অধ্যায় এবং আরও অনেক স্থানেই নারীর প্রতি সদয় ব্যবহারের কথা ও তাহার হ্যায্য অধিকারের বিষয় এই ধৰ্ম-গ্রন্থে পুনঃ পুনঃ আলোচিত হইয়াছে। তথাপি অনেকের বিশ্বাস, ইসলাম-ধর্মে নারীর স্থান বড় নীচে। এটা বোধ করি পুরুষের বহুবিবাহের অনুমতি আছে বলিয়াই। চতুর্থ অধ্যায়ের গোড়াতেই WTCW*ivolito, “take in marriage of such other women as please you, two or three or four and no more.” <!-gigi foopil & সাধু লোকের স্বর্গে গিয়া কিরূপ সুখ-সম্পদ আমোদ-আহ্নাদ ভোগ করিতে পাইবেন, সে-সম্বন্ধে মহম্মদ অনেক আশা দিয়া গিয়াছেন। স্বর্গে প্রতি বিশ্বাসীর নিমিত্ত কিরূপ ও কতগুলি করিয়া হুরানি নির্দিষ্ট হইবে, তাহার পুঙ্খানুপুঙ্খ-রূপ আলোচনা আছে। কিন্তু মর্ত্যের মানবীর অবস্থাটা স্বর্গে কিরূপ দাড়াইবে এবং সেইরূপদাড়ানো বাঞ্ছনীয় কি না, তাহ নিঃসঙ্কোচে বলা যায় না। Sale সাহেব তাহার কোরানের অমুবাদের একস্থানে লিখিয়াছেন,“but that good women will go into a seperate place of happiness, where they will enjoy all sorts of delights; but whether one of those delights will be the enjoyment of agreeable paramours created for