প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:নিষ্কৃতি নাটক শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/৩১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


૨૨ নিষ্কৃতি <zjथंभ च्षक অতুল । ও গো ! কে কোথায় আছ-শিগগীর এসো গুণ্ডাটা আমাকে মেরে ফেললে । চেচামেচি ও গোলমাল শুনিয় এক দিক হইতে সিদ্ধেশ্বরী ও অপর দিক হইত্তে নয়নতার চুটিয়া আসিলেন। নয়নতারা অতুলকে জড়াইয়া ধরিয়া চীৎকার করির বলিলেন । নয়ন । ওরে ! আমি কেন মরতে এখানে এসেছিলাম রে । আমার অতুলকে একেবারে মেরে ফেলেছে! অতুল । তুমি আমায় ছেড়ে দাও, ছেড়ে দাও মা, আমি ওই উল্লুককে জুতো পেটা করবো। মণীন্দ্র। কী ? জুতো পেটা করবি, যত বড় মুখ নয় তত বড় কথা, তবে রে— মণীন্দ্র রুখিয়া মারিতে যাইতেছিল। শৈলজা বাধা দিয়া কহিল । শৈল । মণি কী হচ্ছে কী ? বাইরে যাও—যাও—যা হরি তুইও যা— মণীন্দ্র ও হঙ্গি চলিয়া গেল । ইতিমধ্যে গিরীশ ও হরিশ ব্যস্তভাবে রান্নাঘরের সম্মুখে আসিয়া উপস্থিত হইলেন । গিরীশ জিজ্ঞাসা কঞ্জিলেন । গিরীশ । কী গো ! ব্যাপার কী ? এত গোলমাল কিসের ? সিদ্ধে । কী জানি ? মণি বুঝি অতুলকে কে মেরেছে তাই— নয়ন । ( ভাশুরের সম্মুখে লজ্জাহীনার ন্যায় কাদিতে কাদিতে বলিলেন ) মেরেছে নয়, একেবারে মেরে ফেলেছে । গিরীশ । না, না, না, এ ত ভাল কথা নয়, ভাইয়ে ভাইয়ে ঝগড়া—তা ছাড়া তোর চেয়ে ও বয়সে কত ছোট—ছিঃ ছিঃ ছিঃ ! গিরীশ ভাতৃ-বন্ধুদের সন্মুখ হইতে চলিয়া গেলেন । জতুল কৰিতে কঁদিতে শৈলজাকে অঙ্গুলী নির্দেশে দেখাইয় বলিল ।