প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:পণ্ডিতমশাই-শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/১০৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


}*B পণ্ডিতমশাই - আজ ছদিন হয়ে গেল, বৃন্দাবনের মা মরেচে–তা সে যা হবার হয়েছে, এখন মহাপ্ৰভু ছেলেটিকে বঁচিয়ে দিন। কি নাম বাছা তার ? চরণ না ? আহা! রাজপুস্তুর ছেলে, আজ সকালে তারও দুবার ভেদবমি হয়েছে! কুসুম মুখ তুলিল না, কথা কহিল না, ধীরে ধীরে নিজের ঘরে গিয়া ঢুকিল। - বেল প্রায় তিনটা বাজে, ব্রজেশ্বরী এঘর-ওঘর খুজিয়া কোথাও কুমুমের সন্ধান না পাইয়া দাসীকে জিজ্ঞাসা করিল, ঠাকুরবিকে তোর কেউ দেখেচিস্ রে ? না দিদি, সেই সকালে দেখেছিলুম। পত্নীর কান্নার শঙ্কে কুঞ্জনাথ কাচা ঘুম ভাঙিয়া উঠিয়া বসিয়া বলিল, সে কি কথা! কোথায় গেল তবে সে ? ব্ৰজেশ্বরী কঁদিতে কাদিতে বলিল, জানি নে, আমি ঘর দোর পুকুর বাগান সমস্ত খুজেচি কোথাও দেখতে পাচ্চিনে। চোখের জল ও পুকুরের উল্লেখে কুঞ্জ কাদিয়া উঠিল—তবে সে আর নেই। মার গঞ্জনু সইতে না পেরে নিশ্চয় সে ডুবে মরেচে, বলিয়া .ছুটিয়া বাহিরে যাইতেছিল, ব্ৰজেশ্বরী কোচার খুঁট ধরিয়া ফেলিয়া বলিল, শোনে—অমন করে যেয়ে না— আমি কিছু শুনতে চাই নে, বলিয়া একটন মারিয়া নিজেকে ছিনাইয় লইয়া কুঞ্জ পাগলের মত দৌড়িয়া বাহির হইয়া গেল। মিনিট-দশেক পরে মেয়েমানুষের মত উচ্চৈঃস্বরে কঁদিতে কাদিতে ফিরিয়া আসিয়া উঠানে দাড়াইয়া চোইয়া উঠিল, ম আমার বেদ ও মেরে ফেলেছে—আর আমি থাকৃব না, আর এ-বাড়ি চুক্ৰবন!—ও ে স্লম রে— তাহার শাশুড়ী কিছুই জানিত না, চীংকারের শব্দে বাহিরে আসিয়া হতবুদ্ধি হইয়া গেল ।