প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:পণ্ডিতমশাই-শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/১২৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


১২৬ পণ্ডিতমশাই,

  • এমনি করিা এ কয়টা দিন কাটিয়াছে, কিন্তু আর ত সময় নাই ; ৷ তাই আজ বৃন্দাবন একজন দাসকে ডাকিয়, সে কবে যাইবে জানিতে পাঠাইরা, বহিরে অপেক্ষ করিয়া রহিল। ... v

দাসী তৎক্ষণাৎ ফিধিয়া অ’পিয জানাইল, এখন তিনি যাবেন না। বৃন্দাবন বিস্মিত ইষ্টা কহিল, এখানে আর ত থাকবার যে নেই, সে, কথা বলে দিলে না কেন ? * দাদী কছিল, ীেমা নিলেই সমস্ত জানেন । বৃন্দাবন বিরক্ত টল বলিল, বে জেনে এসো, সে কি একলাই থাকবে ? দাসী এক মিনিটের মধ্যে জানিয়া আসিয়া কছিল, স্থা। 1. বৃন্দাবন তখন নিজেই ভিতরে আসিল । ঘরের কপাট লঙ্ক ছিল । হঠাৎ ঢুকিতে সাংস করিল না, ঈষৎ ঠেলিয়া ভিতরে চাহিয়াই তাঙ্গর সৰ্ব্বাঙ্গে কাটা দিয়া উঠিল। দগ্ধগৃহের পোড়া-প্রাচীরের যন্ত কুসুম এই দিকে মুখ করিয়া দাড়াই ছিল—লেখে তাছার উৎকট, ক্ষিপ্ত চাহনি । । আত্মপ্লানি ও পুত্ৰশোক, কত শিঘ্র মানুষকে কি কবিয় ফেলিতে পার, বৃন্দাবন এই ঠগি প্রথম দেধি সভায় পিছাইল দাড়াইল । ‘অসাবধানে কপাটের কল্প নাড়ি উঠতেই কুময় চলি તરિકે so সরিয়া আসিয়া দ্বার গুলি দি ইলিল, ভেতরে ক্ষে । " বৃন্দাবন ভিতরে এগিড়েই সে দ্বার অর্ণলরদ্ধ করিয়া দিয়া *. আসিয়া দাড়াইল । ச, সে প্রকৃতিস্থ :ম, দুলুলু নারী কি (3. করিবে লেঃ কতিয়া /ী:লর বুক কঁপি উঠিল। ..") কিন্তু হন অদন্তং কাও কিছুই করি , য় আঁচল উপুড় হইয় পড়িয়া স্বামীর দুই পায়ের মধ্যে মুখ ঢাকি স্থির ইয়া পড়িয়া রহিল। , , , C s + a.